default-image

ত্বকের সুস্থতার জন্য তো আমরা অনেক চিন্তাভাবনা করি। বাড়তি সৌন্দর্যের জন্যই হোক কিংবা ত্বককে সুস্থ রাখতেই হোক, যেকোনো ক্ষেত্রেই আমরা নানা ধরনের প্রসাধনসামগ্রী ব্যবহার করি। কিন্তু ত্বকের সুরক্ষায় এমন তোড়জোড় থাকলেও অনেকেই কেমন প্রসাধনসামগ্রী ব্যবহার করছেন, কীভাবে করছেন তা নিয়ে খুব একটা যত্নশীল থাকেন না।
পারসোনার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং রূপবিশেষজ্ঞ কানিজ আলমাস খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘সৌন্দর্যের মূল শিকড় ছড়িয়ে আছে আপনার শরীরের ভেতরে, সেই সাথে মনেও। শুধু বাইরে থেকেই নয়, যত্ন নিতে হবে আপনার গভীরতম সৌন্দর্যের। তবেই তা প্রতিফলিত হবে আপনার চোখে-মুখে।’
ত্বক সুস্থ ও সতেজ রাখতে কিছু নিয়মকানুন মেনে চলা জরুরি, যা খুব সহজ এবং সবার পক্ষেই সম্ভব, যদি আপনি চান। এ বিষয়ে কানিজ আলমাস খান বলেন, ভিটামিন সি, ডি সমৃদ্ধ খাবার ত্বকের জন্য বেশ ভালো। এর সঙ্গে প্রচুর পানি খেতে হবে। আরেকটি বিষয় লক্ষণীয়, রাতে ঘুমানোর কমপক্ষে দু-তিন ঘণ্টা আগে খাবারের পর্ব শেষ করে নিতে হবে। অন্যথায়, অ্যাসিডিটি সমস্যার কারণে আপনার ত্বকে কালো কালো ছোপ পড়তে পারে। এ ছাড়া ফলমূল খাবেন কিন্তু মিষ্টিজাতীয় ফলমূল পরিমিত পরিমাণে খাওয়া উচিত।
ত্বকের নিয়মিত যত্নের জন্য কিছু প্রসাধনীর ব্যবহার আমাদের নিত্য সঙ্গী হয়ে গেছে। এগুলো ব্যবহারের ব্যাপারে অবশ্যই মেয়াদ দেখে কিনবেন। মেয়াদোত্তীর্ণ সামগ্রী কখনোই ব্যবহার করবেন না। আমরা অনেকেই সাময়িকভাবে অর্থ বাঁচাতে গিয়ে দীর্ঘদিনের রোগ বাঁধিয়ে বসি। ত্বকের সুরক্ষায় এমন সতর্কবাণীই শোনালেন কানিজ আলমাস খান।
চলুন, জেনে নিই আরও কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য।
লিকুইড ফাউন্ডেশন

default-image

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে কেউ কেউ লিকুইড ফাউন্ডেশন ব্যবহার করেন। ব্যবহার শুরুর পর থেকে এমন প্রসাধনীর মেয়াদ সাধারণত এক বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। তবে সংরক্ষণ করতে হবে অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা স্থানে, উষ্ণ তাপমাত্রায় এদের কার্যকারিতা নষ্ট হয়ে যায়। আরেকটি বিষয় লক্ষণীয়, আপনার যদি স্পর্শকাতর কিংবা ব্রণপ্রবণ ত্বক হয়, সে ক্ষেত্রে ব্রাশ কিংবা স্পঞ্জের সাহায্যে এক স্তরে এই প্রসাধনী ব্যবহার করতে হবে। হাতের আঙুল ব্যবহার করা একেবারেই ঠিক নয়।
লিপগ্লস ও লিপস্টিক

default-image


এ ধরনের প্রসাধনসামগ্রীতে তুলনামূলক কম ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। তাই এগুলো অন্তত ছয় মাস পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন। আর লিপস্টিক চাইলে এক বছর পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারেন। এর বেশি সময় অতিক্রম হলে সেগুলো ফেলে দিন ময়লার ঝুড়িতে।
মাশকারা ও আইলাইনার

অনেকেই চোখের পাতায় আইলাইনার ও পাপড়িতে মাশকারা ব্যবহার করেন। আপনি যতবার এগুলো ব্যবহার করছেন, ততবারই কিছু না কিছু ব্যাকটেরিয়া কিন্তু ঢোকার সুযোগ পায় প্রসাধনসামগ্রীর এই ছোট্ট বোতলটিতে। পরবর্তী সময়ে ব্যবহারের সময় তা নেতিবাচক প্রভাবও তৈরি করতে পারে আপনার জন্য। তাই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তিন-চার মাস পর পর এই প্রসাধনসামগ্রীগুলো বদলে নেওয়া উচিত।

default-image

পাউডার

default-image

পাউডারজাতীয় প্রসাধনসামগ্রীর স্থায়িত্ব বোঝার জন্য ঘ্রাণ আর রংই সবচেয়ে ভালো উপায়। যত দিন এই দুটো বৈশিষ্ট্য বদলে না যাচ্ছে, তত দিন পর্যন্ত নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেড় থেকে দুই বছর পর্যন্ত এজাতীয় প্রসাধনসামগ্রী আপনার ব্যবহারের আওতায় থাকতে পারে।

বাড়তি সতর্কতা
ত্বকের সৌন্দর্য কিংবা সুস্থতার জন্য ফলমূল কিংবা শাকসবজির তুলনা হয় না, এটি আমরা সবাই জানি। তবে প্রসাধনসামগ্রী ব্যবহারের ক্ষেত্রেও লক্ষ রাখুন, তা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ কি না! ভিটামিন সি ত্বকের কোলাজেন প্রোটিনকে পুষ্টি সরবরাহ করার পাশাপাশি ব্রণ কিংবা বলিরেখা কমাতে দারুণ সহায়তা করে।

বিজ্ঞাপন
রূপচর্চা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন