ভালো ঘুমের জন্য যা করবেন

ঘুমানোর আগে অবশ্যই হাত-পা পরিষ্কার করে লোশন লাগিয়ে নিন। ত্বক শুষ্ক হলে লোশনের সঙ্গে গ্লিসারিন মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। ঘুমানোর আগে ত্বকের যত্নের পাশাপাশি ভালো ঘুম হওয়ার আরও এমনই কিছু উপায় বলে দিলেন রূপ বিশেষজ্ঞ আফরিন মৌসুমি।

রাতে ঘুমানোর আগে গোসল দিবে আরাম। মডেল : সৌমি
ছবি : কবির হোসেন

শোয়ার আগে হাত-মুখ ও পা ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। গলা ও কাঁধ ভেজা তোয়ালে দিয়ে মুছে নিতে পারেন, বিশেষত যাঁরা বাড়ির বাইরে কাজ করেন, তাঁদের জন্য কাঁধ ও ঘাড় ভিজিয়ে নেওয়া খুবই ভালো অভ্যাস। চাইলে গোসল করে নিতে পারেন। গোসলের আগে হালকাভাবে তেল মালিশ করা ভালো। তিল, নারকেল বা সরিষার তেল বেছে নিতে পারেন। মিনিট পাঁচেক সময় নিয়ে তেল মালিশ করে আরও পাঁচ-দশ মিনিট অপেক্ষার পর গোসল করুন। এতে ত্বক কোমল ও মসৃণ থাকে, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ে, ক্লান্তি দূর হয়।

রাতে ঘুমানোর আগে ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার জরুরি। মডেল : প্রিয়ম
ছবি : কবির হোসেন

শুধু ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়েই ঘুমানো যাবে না। মুখ পরিস্কার করে অবশ্যই খুব ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। ময়েশ্চারাইজার যত হালকা হবে, তত ভালো। চাইলে বাড়িতেও তৈরি করতে পারেন ময়েশ্চারাইজার। ৪ টেবিল চামচ ভাত (রান্নার পর স্টিলের চালনিতে চেলে নরম করে নিতে হবে), ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, ১টি সেদ্ধ আলু এবং ২টি ভিটামিন ই ক্যাপসুল (ক্যাপসুলের ভেতরের রস) মিশিয়ে ময়েশ্চারাইজার তৈরি করতে পারেন। এটি সব ধরনের ত্বকের জন্য ভালো, ক্লিনজার হিসেবেও কাজ করে।

বেলি ফুল প্রাকৃতিক অ্যারোমার কাজ করে। মডেল: প্রিয়ম
ছবি : কবির হোসেন

সুগন্ধে ভালো ঘুম হয়। তাই ঘরে সুগন্ধির ব্যবস্থা করতে পারেন। রজনীগন্ধা ও বেলি ফুলের মতো ফুল প্রাকৃতিক অ্যারোমার কাজ করে। এছাড়াও শোবার হালকা মিউজিকের ব্যবস্থা রাখতে পারেন। আর পাটভাঙা নতুন কাপড় নয়, ঘুমানোর সময় পাতলা নরম কাপড় পরলে আরাম অনুভব করবেন।