বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এই তালিকায় আরেক অপরিহার্য নাম বেলা হাদিদ। মার্কিন এই মডেল ২০২১ সালে এমন সব ব্র্যান্ডের পোশাক পরে জনসমক্ষে দেখা দিয়েছেন, যাঁরা পরিবেশের কোনো ক্ষতি না করে পোশাক তৈরিতে বদ্ধপরিকর। কেবল ব্র্যান্ডই নয়, খুঁজে খুঁজে এমন সব ডিজাইনারের পোশাক পরেছেন, যাঁরা কেবল টেকসই পোশাক তৈরি করেন। ৬৯ বছর বয়সী ফরাসি ফ্যাশন ডিজাইনার জ্যঁ পল গালতিয়ার থেকে শুরু করে ৫০ বছর বয়সী ব্রিটিশ ফ্যাশন ডিজাইনার স্টেলা ম্যাককর্টনির পোশাকে দেখা দিয়েছেন। মাইক্রো স্কার্ট আর রাতের পোশাক কিনেছেন অ্যাবারক্রোমবি অ্যান্ড ফিচ থেকে। ব্র্যান্ডটি পুরোনো কাপড়কে নতুন করে ব্যবহার করে নতুন পোশাক বানানোর জন্য পরিচিত।  

default-image

আরেক সুপারমডেল কেন্ডাল জেনারও এ বছর দেখা দিয়েছেন একাধিক ভিনটেজ লুকে। পুরোনো জামাকাপড়ে এটা-সেটা করে যোগ করায় বিশ্বাসী তিনি। তিনিও এ বছর বেশ কিছু ফরাসি ব্র্যান্ডের দিকে ঝুঁকেছেন, যাঁরা ফ্যাশন বিশ্বকে পরিবেশের জন্য ঝুঁকিমুক্ত করতে বদ্ধপরিকর। কেন্ডাল জানিয়েছেন, তিনি হার্ভে স্টুডিওর ভক্ত, যারা কেবলই টেকসই পোশাক বানায়।

default-image

বারবাডিয়ান গায়িকা রিয়ানাও নীরবে পোশাকের মাধ্যমে রীতিমতো বিপ্লব ঘটিয়েছেন। শ্যানেল হোক বা ডি’ওর, রিয়ানা বেছেন নিয়েছেন পুরোনো ভিনটেজ কালেকশনকেই। ফ্যাশন বিশ্বকে তিনি জানাতে চান, যা কিছু পুরোনো, সবই ফেলনা নয়। তিনি ব্রিটিশ ডিজাইনার কর্নার আইভিসের ভিনটেজ জার্সি আর সিল্কের স্কার্ফের প্রচারণা করেছেন। এগুলো এক যুগ পরও এ রকমই থাকবে। পুরোনো হবে না।

default-image

শুরু থেকেই পরিবেশবাদী হিসেবে পরিচিত এমা ওয়াটসন। আর্থশুট প্রাইজের লালগালিচায় এই হলিউড তারকা হাজির হয়েছিলেন ২৫ বছর বয়সী ব্রিটিশ-মার্কিন ডিজাইনার হ্যারিস রিডের ডিজাইন করা একটি ‘আপসাইকেলড’ পোশাকে। জাতিসংঘের ২৬তম জলবায়ু সম্মেলনেও অংশ নিয়েছেন এমা। সেখানে তিনি পরেছিলেন নিউজিল্যান্ডের ফ্যাশন ডিজাইনার এমিলিয়া উইকস্টিডের ডিজাইন করা পোশাকে। আর সেগুলো সবই পুরোনো সুতা রিসাইকেল করে বোনা।

ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন