default-image
বিজ্ঞাপন

এফডিসিআই আয়োজিত ‘ল্যাকমে ফ্যাশন উইক’-এর আনুষ্ঠানিক প্রথম দিন ক্রমে জমজমাট হয়ে ওঠে নানান সৃষ্টিকথায়। গরমের বিকেলে হালকা হাল ফ্যাশনের পোশাক থেকে উৎসবের রাতের ঝলমলে পোশাকের সন্ধান দেওয়া হয় এ আসরে। পরশ-শালিনী, পঙ্কজ-নিধি, শান্তনু-নিখিলদের মতো নামজাদা ডিজাইনারদের দাপট ছিল প্রথম দিনের শেষ লগ্নে।

default-image

পরশ-শালিনী ল্যাকমের আসরে হাজির করেন উৎসবের রাতের পোশাক নিয়ে। এই সংগ্রহের শিরোনাম ছিল গেইশা। টুলে, শিফন, জর্জেট, ডেনটেল, চানটেলি, অরগেঞ্জার ক্যানভাসে এই দুই ডিজাইনার ব্যবহার করেছেন সাদা, আইভরি, নীল, আদা রঙের শেড আর শ্যাম্পেন রঙের বাহার। নৈশ পার্টি বা বিয়ের রাতের পোশাকের সন্ধান পেতে পারেন পারস-শালিনীর কালেকশনে। নেট এবং লেসের গাউন, জাম্প স্যুট, শাড়ি আর লেহেঙ্গা-চোলির বৈচিত্র্য ছিল তাঁদের আয়োজনে।

বসন্তের নানা রং নিয়ে মঞ্চে হাজির ছিলেন খ্যাতনামা ডিজাইনার জুটি পঙ্কজ আর নিধি। এদিনের রাত ঝলমল করে উঠেছিল তাঁদের বর্ণময় পরিবেশনায়। পঙ্কজ-নিধির ‘কালাইডো’ কালেকশনে ছিল সিকোয়েন্সের কাজ, ফ্রিল দেওয়া নানান শেপের ফ্রক, মিনি স্কার্ট-টপ, জ্যাকেট, হট প্যান্ট। তাঁদের ক্যানভাসে উদ্ভাসিত ছিল নানান জ্যামিতিক মোটিফ।

default-image

অনুষ্ঠান শেষে সংবাদ সম্মেলনে পঙ্কজ-নিধি বলেন, ‘গত বছর করোনার কারণে সর্বত্র ছিল বিষাদের ধূসর রং। তাই আমরা আমাদের পরিবেশনার মাধ্যমে সবার জীবন রাঙিয়ে দিতে চেয়েছি নানান রঙে। ফেলে আসা বছরকে ভুলে এক রঙিন দিনের সন্ধান দিয়েছি। নানান রঙের ছোঁয়ায় আমরা নানান মুড ও অভিব্যক্তিকে তুলে ধরেছি। আমরা চেয়েছি এ পরিবেশনার মাধ্যমে এক ইতিবাচক বার্তা এবং প্রাণশক্তি পৌঁছে দিতে।’ ফ্যাশন দর্শন সম্পর্কে তাঁরা বলেন, ‘আমরা সব সময় চেয়েছি আরামদায়ক ও সহজে পরতে পারে, এমন পোশাক উপস্থাপন করতে। আমাদের লক্ষ্য হলো ফ্যাশনের নতুন ধারার সঙ্গে পরিচয় করানো।’

বিজ্ঞাপন

‘ল্যাকমে ফ্যাশন উইক’–এর প্রথম রাতের শেষ অঙ্ক জমজমাট ছিল শান্তনু-নিখিলের ব্যতিক্রমী পরিবেশনায়। নারী-পুরুষ সবাইকে নিয়েই ছিল তাঁদের এ আয়োজন। মেয়েদের জন্য তাঁরা মঞ্চে নিয়ে আসেন কুর্তা এবং ক্রপড জ্যাকেট শার্ট। ছেলেদের জন্য তাঁদের আয়োজনে ছিল শেরওয়ানি, স্ট্রাকচার্ড শার্ট, হাফ প্যান্ট। শান্তনু-নিখিল এই সংগ্রহে সাদা, কালো, ধূসর ও নীল রঙের ব্যবহার করেছেন।

default-image

‘এফডিসিআই ল্যাকমে ফ্যাশন উইক’-এর প্রথম দিনে শুরু ছিল নতুনদের উপস্থিতিতে। তবে এদিন কোনো বলিউড তারকার উপস্থিতি ছিল না। আগামী দিনগুলো হয়তো তাঁদের দ্যুতিতে ফ্যাশনের এ আঙিনা আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন