default-image

যদিও করোনাকাল, কিন্তু এর মধ্যেও থেমে নেই উৎসবের আয়োজন। বিয়ের আয়োজন তো চলছেই, সামনে আছে পয়লা ফাল্গুন। এ ছাড়া আরও নানা ঘরোয়া আয়োজন তো থাকছেই। ফ্যাশন হাউসগুলোও তাই চাঙা এসব আয়োজনে। শুধু বড়দের জন্যই নয়, ছোটদের জন্যও নানা আয়োজন থাকছে এসব হাউসে। কেউ উৎসব ধরে করছেন পোশাকে নকশা আবার কেউবা দিচ্ছেন আবহাওয়াকে প্রাধান্য। পোশাকের রঙেও থাকছে উৎসবের আবহ।

ফ্যাশন হাউসগুলো ঘুরে দেখা গেল, নেটের ওপর কারুকাজ করা আকর্ষণীয় পোশাক যেমন রয়েছে, তেমনি আবার থাকছে এমব্রয়ডারি করা পোশাকের আয়োজন। কোনো পোশাকে পাবেন স্বচ্ছ নেট, কোনো পোশাকের নেটে বা বেল্টে থাকছে পুঁতির কাজ। পোশাকের মোটিফে থাকছে ফুলেল নকশার প্রাধান্য। এদিকে উৎসবে বা নিমন্ত্রণে ছোটদের গাউন পরতে দেখা যায়। তেমনি নেট, ভেলভেট, এমনকি সুতি কাপড়ের গাউনের আয়োজন রাখছে হাউসগুলো। দেখা গেল লেহেঙ্গা, গাউন ধাঁচের ফ্রকের মতো পোশাকও।

বিজ্ঞাপন

এ তো গেল ছোট্ট মেয়েদের কথা। ফ্যাশন হাউস সেইলরের ডিজাইনাররা জানালেন, ছেলেশিশুরাও উৎসবভেদে রংবেরঙের পোশাক পরতে পারে। বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য বেছে নিতে পারে পাঞ্জাবি বা শেরওয়ানি। হালকা কাজ করা পাঞ্জাবির সঙ্গে নকশা করা কোটিও পরতে পারে। তবে স্যুটে–কোটে ছোট্ট শিশুদের সবচেয়ে স্মার্ট দেখায়। এ ছাড়া শিশুকে সাদা রঙের শার্টের সঙ্গে ছোট্ট একটা বো-টাই লাগিয়ে দিতে পারেন।

default-image

শিশুদের জন্য সুন্দর সুন্দর পোশাকের আয়োজন থাকছে প্রায় প্রতিটি ফ্যাশন হাউসেই। ফ্রক পাবেন ইনফিনিটি মেগা মল, শৈশব, ক্লাব হাউসে। আড়ংয়ে পাবেন লেহেঙ্গা আর পাঞ্জাবি। স্টাইলসেলে পাবেন পাঞ্জাবি, শেরওয়ানি, লেহেঙ্গা আর গাউন। দেশি ফ্যাশন হাউসগুলোয় পাবেন ভিন্ন ভিন্ন নকশার সালোয়ার-কামিজ আর পাঞ্জাবি। এ ছাড়া বিভিন্ন দোকানে পাবেন স্যুটের কাপড়। কাপড় কিনে নিয়ে শিশুর মাপে বানিয়ে নিতে পারেন দারুণ কিছু স্যুট। পোশাকের ধরন ও কারুকাজভেদে শিশুর এসব পোশাকের জন্য খরচ হবে ১ হাজার ৫০০ থেকে ১৫ হাজার টাকা।

শিশুর পোশাকের খোঁজ খবর তো নেওয়া হলো। এবার শিশুর ফ্যাশনের দিকের পাশাপাশি স্বস্তির দিকটাও খেয়াল রাখতে হবে। ছোট্ট মেয়েটা লেহেঙ্গা পরে হাঁটতে পারবে কি না, ওড়না নিয়ে চলাফেরা করতে ওর অসুবিধা হবে কি না, খেয়াল রাখুন।

default-image

নেটের কাপড়ে তৈরি করা পোশাকের কারণে ওর কোমল ত্বকে কোনো অস্বস্তি হচ্ছে কি না, তা-ও খেয়াল করুন। নেটের কাপড়ের পোশাক পরানোর ক্ষেত্রে খেয়াল রাখুন, ভেতরের অংশে সুতি কাপড় আছে কি না। ডিজাইনাররা জানালেন, নেটের কাপড়ের তৈরি পোশাকের ভেতরের দিকটায় সুতি কাপড় না থাকলে শিশুর অস্বস্তি হতে পারে।

default-image

শাড়ি-লেহেঙ্গা-গাউন বা স্যুট-পাঞ্জাবি যা-ই বেছে নিন, পোশাক নির্বাচনের সময় শিশুর পছন্দের কথাটাও মাথায় রাখুন। কারণ, উৎসবের দিন নতুন পোশাকে ওর হাসিমুখটাই আপনার জন্য সবচেয়ে বড় আনন্দের, তাই না?

বিজ্ঞাপন
ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন