বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ছাপা প্যান্ট

এরই মধ্যে জিনস ও ট্রাউজারে দেখা যাচ্ছে স্নেক প্রিন্ট, চেকার বোর্ড, জেব্রা স্ট্রাইপস আর নানা ফুলফল। এটা আরও জনপ্রিয়তা পাবে ২০২২ সালে। সে ক্ষেত্রে ওপরে শার্ট বা টি–শার্ট যা–ই হোক না কেন, সেটা একটু সিম্পল হওয়াই ভালো।

default-image

এ বছরের রং ল্যাভেন্ডার

বেশ কয়েক বছর বেগুনি রং ফ্যাশনে অতটা পাত্তা পায়নি। তবে ২০২২ সালে ল্যাভেন্ডার রং আপনার পোশাকের তিনটি অনুষঙ্গের যেকোনো একটি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। ধরুন আপনি একটি ট্রাউজার, ফ্লটি মিডি ড্রেস আর ব্লেজার পরেছেন। এই তিনের যেকোনো একটি ল্যাভেন্ডার হতে পারে। এগুলোর কোনোটা যদি না হয়, আপনার পায়ের জুতা বা হাতব্যাগ রাঙাতে পারে ল্যাভেন্ডার। মোদ্দাকথা, আগামী বছর ফ্যাশনে ল্যাভেন্ডার রং গুরুত্ব পাবে। বিশেষ করে পার্টিমুডের জন্য এটিকেই ধরা হচ্ছে আদর্শ রং।

default-image

সিকুইন আর দ্য কুইনস!

মানুষ একটা বিষাদময় সময় পার করে মনোযোগ দেবে পার্টির দিকে। আর সে জন্য তারা সব ম্যাড়মেড়ে পোশাককে পেছনে ফেলে তুলে নেবে সিকুইন বা চুমকির কাজ। সিকুইনকে বলা হয় ‘রিভেঞ্জ ড্রেসিং’। আর পার্টি, আড্ডা, মজা—এসবের জন্য মানুষ হাত বাড়াবে ওয়ার্ডরোবের সবচেয়ে ঝলমলে পোশাকের দিকে।

default-image

‘ডার্ক একাডেমিয়া’ বলে একটা বিষয় আছে ফ্যাশনে। এখানে কিছু গাঢ় রং অন্তর্ভুক্ত, যেগুলো সব সময়ই চলতি ধারা। যেমন কালো, নেভি ব্লু। এ রকম কিছু পোশাক আর অনুষঙ্গও আছে, যেগুলো সব সময় ট্রেন্ডি—চামড়ার বানিয়ে নেওয়া (টেইলরড) ব্লেজার, জ্যাকেট, কাঁধে ঝোলানো ব্যাগ, পার্টি পার্স আর ওভারঅলস। নিয়ম মেনে এগুলোও থাকবে ২০২২–এর ফ্যাশনে।

ফ্যাশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন