ফ্রিজের ওপরের অংশে ম্যাট ব্যবহার করা ভালো। অনেকে ফ্রিজের ওপরের খালি জায়গায় নানা ধরনের ড্রাম, বক্সের মতো জিনিসপত্র রাখেন, যা দেখতে খুবই বেমানান। ফ্রিজের ওপরে কিছু রাখা যাবে না। অনেকে ফুলতোলা নকশার কাপড় দিয়ে ওপরের অংশ ঢেকে রাখেন। তবে কোনো অবস্থাতেই মোটা কোনো আচ্ছাদন ব্যবহার করা যাবে না। এতে ফ্রিজ উত্তপ্ত হয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। হ্যান্ডলুমের নরম কাপড়ের ম্যাট দিয়ে ওপরের অংশটি সাজানো যায়। এতে কাপড়টি ময়লা হলে পরিষ্কার করা যেমন সহজ, তেমনি এই কাপড় পানিও দ্রুত শুষে নেয়।

ফ্রিজের হাতল কোনোভাবেই খালি রাখা যাবে না। এতে অল্প দিনেই বিবর্ণ হয়ে যাবে হাতলের রং। ফলে ফ্রিজের রঙের সঙ্গে আর মিলবে না হাতলের রং। হাতলের হ্যান্ডেল কাভারে নরম সুতি কাপড় ব্যবহার করলে আরাম হবে। দেখতেও ভালো লাগবে। হ্যান্ডেল কাভার বাজার থেকে কিনেও নিতে পারেন, আবার চাইলে পছন্দমতো বানিয়েও নেওয়া যায়। ফ্রিজের ওপরের কাপড়ের সঙ্গে মিলিয়ে রাখতে পারেন হ্যান্ডেল কাভার। তবে সাধারণত এই কাপড়ের রং গাঢ় হওয়াই ভালো। তাহলে ময়লা বা খাবারের দাগ লাগলেও বোঝা যাবে না।

ফ্রিজ সাজাতে সবচেয়ে পরিচিত অনুষঙ্গ হলো ম্যাগনেট। এখন ক্লে ম্যাগনেট, ছবির ম্যাগনেট, কাঠের খোদাই করা ম্যাগনেট, কাপড়ের ম্যাগনেট পাওয়া যায়, যা ফ্রিজের সাজে আনবে বৈচিত্র্য। বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বা সিম্বল দিয়েও ম্যাগনেট হয়। দেশের জাতীয় পতাকা, শহীদ মিনার, মুক্তিযুদ্ধ, দোয়েল, শাপলা, কাঁঠাল ইত্যাদির আদলেও ফ্রিজের ম্যাগনেট পাওয়া যায়। এসব দিয়েও ফ্রিজ সাজাতে পারেন। শুধু খেয়াল রাখুন, ফ্রিজের সাজে যেন থাকে রঙের বৈপরীত্য। হালকা রঙের ফ্রিজ গাঢ় রঙের অনুষঙ্গে সাজাতে হবে। তবেই তার রংটা ফুটে উঠবে।

ফ্রিজ ভালো রাখার জন্য নিচে ট্রে বা চৌকি ব্যবহার গুরত্বপূর্ণ। কাঠের বা টিনের ট্রেতে পানি পড়ে নষ্ট হতে পারে। তবে এখন ফ্রিজের দোকানেই পাওয়া যায় ফ্রিজের সঙ্গে ম্যাচিং ফাইবার ট্রে, সেটা ব্যবহার নিরাপদ। ফ্রিজ সরানোর সুবিধার জন্য অনেক ফ্রিজের নিচে লাগানো থাকে চাকা। প্রয়োজন বুঝে চাকা লক করেও রাখা যায়। চাকাযুক্ত ফ্রিজের নিচে ট্রে না ব্যবহার করলেও চলবে। ফাইবার ছাড়াও বাজারে প্লাস্টিকের ট্রে পাওয়া যায়। তবে একটু মোটা ও শক্ত জিনিসের ওপর ফ্রিজ রাখা ভালো।

গৃহসজ্জা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন