বিজ্ঞাপন

রসুনের ভর্তা

উপকরণ
২০০ গ্রাম রসুন (বড় রসুন), পেঁয়াজকুচি ৪ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচকুচি ৩টি, ধনিয়াপাতাকুচি ২ টেবিল চামচ, শর্ষের তেল ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো।

default-image

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে রসুনের খোসাসহ কোষ ছাড়িয়ে নিতে হবে। ফ্রাইপ্যান চুলোয় দিয়ে অল্প আঁচে হালকা গরম হলে তাতে খোসাসহ কোষগুলো হালকা নেড়ে ঢাকনা দিয়ে দিতে হবে। মাঝেমধ্যে ঢাকনা তুলে নেড়ে দিতে হবে। পুরো কাজটা চুলোর আঁচ অল্প রেখে করতে হবে। ততক্ষণ পর্যন্ত নাড়ব, যতক্ষণ না রসুন সেদ্ধ হয়। চামচ দিয়ে চাপ দিয়ে দেখতে হবে রসুন যদি নরম লাগে, তাহলে বুঝতে হবে রসুন সেদ্ধ হয়ে গেছে। এরপর রসুন আলাদা একটি পাত্রে তুলে রেখে ফ্রাইপ্যানটা ধুয়ে এর মধ্যে কুচানো পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচকুচি, ধনেপাতাকুচি ও সামান্য লবণ দিয়ে পাতিলের মধ্যে ভেজে তুলতে হবে। এরপর ভেজে রাখা রসুনের কোষগুলো থেকে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। খোসা ছাড়ানো রসুনের কোষগুলো হাতের সাহায্যে একটু ভর্তা ভর্তা করে নিতে হবে। ভেজে রাখা পেঁয়াজ, ধনেপাতা, কাঁচা মরিচ ও লবণ ভালোভাবে মেখে রাখা রসুনের সঙ্গে মেশাতে হবে। অল্প পরিমাণ শর্ষের তেল দিয়ে আবার মেখে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে রসুনের ভর্তা।

রেসিপি পাঠিয়েছেন:
মায়িদাহ আলম অর্থী, রোকেয়া আজিম সড়ক, ভাটিখানা, বরিশাল

পটল-পুদিনাপাতায় মুরগির মাংস

উপকরণ

মুরগি ২৫০ গ্রাম সাইজের একটি টুকরা করে কেটে ধুয়ে নিতে হবে, পটল ৪টি, পুদিনাপাতার কুচি ১–২ চা–চামচ, পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ, রসুনকুচি ১ চা–চামচ
আদাবাটা ১ চা–চামচ, তেল ৩ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৩টি, জিরাগুঁড়া সিকি চা–চামচ,
লবণ স্বাদমতো, হলুদ সিকি চা–চামচ, দারুচিনি ১টি, সাদা এলাচি ২টি, লবঙ্গ ৩টি, তেজপাতা ১টি, গোলমরিচের গুঁড়া সিকি চা–চামচ, পানি পরিমাণমতো।

default-image

প্রণালি

প্রথমে পটলগুলো ভালোভাবে ধুয়ে খোসা ছিলে দুই ফালি করে কেটে সামান্য লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। ধুয়ে রাখা মুরগি পরিমাণমতো লবণ ও হলুদ দিয়ে ভালোভাবে মেখে ১৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর জ্বলন্ত চুলায় কড়াই বসিয়ে তিন টেবিল চামচ তেল দিতে হবে। তেলের মধ্যে পিঁয়াজ, রসুন, আদাবাটা, তেজপাতা, লবঙ্গ, সাদা এলাচি ও দারুচিনি দিয়ে বাদামি করে কষিয়ে নিতে হবে। এরপর মেখে রাখা মুরগি কড়াইতে ঢেলে কাঁচা মরিচ ও ১ কাপ পানি দিয়ে ১০ মিনিট ভালোভাবে নেড়ে মুরগি সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত ঢেকে রাখতে হবে। মুরগি সেদ্ধ হয়ে এলে এতে সেদ্ধ করে রাখা পটল এবং পুদিনাপাতার কুচি দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে আরও ১ কাপ পানি দিয়ে কড়াইতে ঢাকনা দিয়ে মিডিয়াম আঁচে রেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। ১০ মিনিট পর ঢাকনা তুলে জিরাগুঁড়া মিশিয়ে মুরগি ভালোমতো সেদ্ধ হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে পরিবেশন করতে হবে দারুণ মজাদার এবং পটল-পুদিনাপাতায় মুরগির মাংস। সাদাভাত অথবা রুটির সঙ্গে এটি পরিবেশন করা যাবে।

রেসিপি পাঠিয়েছেন:

ডা. আনিকা ফারহা
উত্তর বালুবাড়ি, রেল বাজার রোড, দিনাজপুর সদর।

পাঁচফোড়নে মিক্সড সবজি

উপকরণ

পেঁপে কিউব ১ কাপ, কাঁচা কলার কুচি আধা কাপ, পটল কিউব ১ কাপ, বরবটিকুচি আধা কাপ, গাজরকুচি আধা কাপ, পাঁচফোড়ন আধা চা–চামচ, পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ, রসুনকুচি আধা চা–চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ২টি, জিরাগুঁড়া সিকি চা–চামচ, লবণ স্বাদমতো, হলুদ সিকি চা–চামচ, দারুচিনি ১টি, পানি পরিমাণমতো

default-image

প্রণালি

প্রথমে সবজিগুলো ভালোভাবে ধুয়ে কেটে নিতে হবে। এরপর জ্বলন্ত চুলায় কড়াই বসিয়ে দুই টেবিল চামচ তেল দিতে হবে। তেলের মধ্যে পাঁচফোড়ন, পেঁয়াজ, রসুন ও দারুচিনি দিয়ে হালকা বাদামি করে ভেজে নিয়ে ধুয়ে রাখা সবজিগুলো কড়াইতে ঢেলে দিতে হবে। এতে লবণ, হলুদ, কাঁচা মরিচ এবং ১ কাপ পানি দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে মসলাগুলো মিশিয়ে নিতে হবে। কড়াইতে ঢাকনা দিয়ে হালকা আঁচে রেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। ১০ মিনিট পর ঢাকনা তুলে জিরাগুঁড়া মিশিয়ে একটু নেড়ে দিয়ে আবার হালকা আঁচে ১০ মিনিট রেখে চুলা থেকে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে দারুণ সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর পাঁচফোড়নে মিক্সড সবজি। এটা সাদা ভাত অথবা রুটির সঙ্গে (৪ জনের জন্য) পরিবেশন করা যাবে।

রেসিপি পাঠিয়েছেন:
ডা. আনিকা ফারহা
উত্তর বালুবাড়ি, রেল বাজার রোড, দিনাজপুর সদর।

রসনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন