বিফ মাশরুম চাউমিন
বিফ মাশরুম চাউমিনছবি: লেখক

বিভিন্ন দেশের পদগুলোয় কিছু কিছু মিল পাওয়া যায় বৈকি। তবে শেফদের হাতভেদে একেকটা ডিশ দারুণ মজাদার হয়ে ওঠে। একজন ভালো শেফের রান্নার প্রতি ভালোবাসা, আনুগত্য থাকে। রান্না একটা অপূর্ব শিল্প। শিল্পীর হাতের ছোঁয়ায় যেমন ক্যানভাসে ছবি ফুটে ওঠে, ঠিক তেমনি রন্ধনশিল্পীর আন্তরিক প্রয়াসে বিভিন্ন পদ তৈরি হয়।

default-image

রাঁধতে আমিও ভালোবাসি। আমারও আছে ভালো লাগা সব পদ। তেমনই একটি বিফ মাশরুম চাউমিন। এতে যে যার পছন্দমতো সবজি দিতে পারবেন। এটা পরিপূর্ণ খাবার। নানা রকম করেই চাওমিন রান্না করা যায়। এটা খুবই মজাদার খাবার। সকাল, দুপুর, সন্ধ্যা বা রাত—যেকোনো সময়ের জন্যই এটা অনবদ্য।

বিজ্ঞাপন

উপকরণ

default-image

হাড় ছাড়া গরুর মাংস পাতলা করে কেটে সেদ্ধ করা ১ কাপ, বাঁধাকপিকুচি ১/২ কাপ, ব্রকলি পাতলা কাটা ১/২ কাপ, শসা ১/২ কাপ, গাজর ১/৪ কাপ, বাটন মাশরুম কাটা ১ কাপ, চেরা কাঁচা মরিচ ৪-৮টি, লবণ স্বাদমতো, টেস্টিং সল্ট বা আজিনোমোটো ১/২-১ চা-চামচ, সয়া সস ৩ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ ১/২ কাপ, সেদ্ধ করে পানি ঝরানো সরু এগ নুডলস ৩ কাপ, সাদা তেল পরিমাণমতো, মাখন ২ টেবিল চামচ, সেদ্ধ পালংশাক সাজানোর জন্য, আদাকুচি ১ চা-চামচ, রসুনকুচি ১/২ চা-চামচ।

প্রণালি
চায়নিজ রান্নার বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী এর উপকরণগুলো আগে থেকে গুছিয়ে রাখলে মূল রান্নায় সময় কম লাগবে। নুডলস প্যাকেটের নিয়মানুযায়ী সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে। গরম নুডলস কলের পানিতে ঠান্ডা করা যাবে অথবা গরম নুডলসে একটু তেল মাখালে নুডলস আলাদা থাকবে।

মাংসের স্লাইসগুলো মাখন, লবণ, আদা, রসুন, পানি ও সয়া সস দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। সবজিও গরম পানিতে ব্লাঞ্চ করে নিতে হবে।

এবার একটা নন-স্টিক ফ্রাইপ্যানে মাংস, সবজি ও মাশরুমকুচি আলাদাভাবে ভেজে নিতে হবে। স্বাদমতো সয়া সস, আজিনোমোটো, লবণ, কাঁচা মরিচ দিতে হবে। নুডলস, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ দিয়ে হালকা ভেজে তুলে রাখতে হবে। শেষবার সবজি, মাংস ও মাশরুম প্যানে দিয়ে তাতে নুডলস মেশাতে হবে। লবণ চেখে রান্না শেষ করতে হবে। পাত্রে ঢেলে সেদ্ধ পালংপাতা দিয়ে সাজিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করতে হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0