বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মিষ্টিকুমড়া বাংলাদেশে জনপ্রিয় একটি সবজি। এটি দেখতে যত সুন্দর, স্বাস্থ্যের পক্ষে ঠিক ততটাই উপকারী। ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স, সি এবং ই, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাংগানিজ, আয়রন, জিংক, ফসফরাস, কপার, ক্যারটিনয়েড এবং অন্য অনেক অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের আধার মিষ্টিকুমড়া। এ ছাড়া বিটা-ক্যারোটিনসমৃদ্ধ এই সবজি আমাদের দেহের ক্যানসার প্রতিরোধক কোষ গঠন করে।

আমরা সাধারণত মিষ্টিকুমড়া দিয়ে ঝালজাতীয় খাবার রান্না করে থাকি। কিন্তু এটি দিয়ে যে হালুয়া বা লাড্ডু তৈরি করা যায়, অনেকেই হয়তো আমরা সেটা জানি না।
লাড্ডু পছন্দ করেন না, এমন ব্যক্তি খুব কমই আছেন আমাদের মধ্যে। নানা রকম লাড্ডুর ভিড়ে আমার নতুন সংযোজন মিষ্টিকুমড়ার শাহি লাড্ডু।

বাংলাদেশের বাইরে বিভিন্ন দেশে মিষ্টিকুমড়া দিয়ে স্যুপ এবং সবজি ছাড়াও তৈরি করা হয় বিভিন্ন রকমের মিষ্টান্ন, যেমন পামকিন পাই, পামকিন কেক ইত্যাদি। সেই ভাবনা থেকেই মিষ্টিকুমড়া দিয়ে আমার হালুয়া বানানোর প্রচেষ্টা এবং শতভাগ সফলতা লাভ!

আমার বানানো গাওয়া ঘি এবং বিভিন্ন বাদামের ব্যবহার এ লাড্ডুতে যোগ করেছে একটি শাহি ফ্লেভার। একবার বানালে বারবার খেতে চাইবেন, সঙ্গে পাওনা হবে প্রিয়জনের বিরাট প্রশংসা।

default-image

লাড্ডুর উপকরণ

১. মিষ্টিকুমড়া (ছোট টুকরা করা ৪ কাপ)। তবে আপনি চাইলে গ্রেট করেও নিতে পারেন।
২. তরল দুধ ১.৫ কাপ
৩. ঘি ১ টেবিল চামচ
৪. দারুচিনি ছোট ৩ টুকরা এবং এলাচি ৪টি এবং
৫. বিভিন্ন রকমের বাদামের কুচি।

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে মিষ্টিকুমড়া ধুয়ে পরিষ্কার করে ছিলে ছোট ছোট টুকরা করে নিন। ভাজির মতো কুচি করেও নিতে পারেন।

একটি পাত্রে মিষ্টিকুমড়ার টুকরাগুলো দুধ দিয়ে ভালোভাবে সেদ্ধ করে নিন ৫-৬ মিনিট। সেদ্ধ মিষ্টিকুমড়া একটি হ্যান্ড হুইস্ক অথবা ডাল ঘুঁটনি দিয়ে ভালো করে ঘুঁটে থকথকে মিশ্রণ বানিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন।

default-image

এবার চুলার মাঝারি আঁচে একটি ছড়ানো ফ্রাইপ্যানে ঘি দিয়ে, তাতে গরমমসলা দিন। একটু নেড়ে চেড়ে সুন্দর ঘ্রাণ বেরোলে তাতে মিষ্টিকুমড়ার মিশ্রণটি দিয়ে দিন।

চুলার আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে মিষ্টিকুমড়ার মিশ্রণটিকে ভালো করে ভেজে নিন ৪-৫ মিনিট। মিশ্রণটি থেকে পানি শুকিয়ে এলে দিয়ে দিন স্বাদমতো চিনি। চিনি গলে মিশ্রণটি একটু নরম হয়ে আসবে। আর ৪-৫ মিনিট ভাজলেই চিনির পানি শুকিয়ে মিষ্টিকুমড়ার মিশ্রণটি ফ্রাইপ্যানের গা ছেড়ে আসবে। এ পর্যায়ে দিয়ে দিন বাদাম।

বাদাম দিয়ে আর ২-৩ মিনিট ভাজলেই তৈরি হবে মিষ্টিকুমড়ার মজাদার হালুয়া। এই হালুয়া থেকেই ছোট ছোট লাড্ডু বানিয়ে নিন। লাড্ডু বানানোর সময় দিতে পারেন মিষ্টিকুমড়ার আকৃতি, যা দেখতে লাগবে ভীষণ আকর্ষণীয়। বানানো একটি লাড্ডু হাত দিয়ে একটু চ্যাপ্টা করে নিন। একটি কাঠি দিয়ে চারপাশ থেকে একটু খাঁজ কেটে নিন মিষ্টিকুমড়ার মতো। একটি লবঙ্গ ওপর থেকে গেঁথে দিন। ব্যস হয়ে গেল মিষ্টিকুমড়ার আকৃতির লাড্ডু।

default-image

এবার এই লাড্ডুগুলো শুকনো নারকেলের গুঁড়ায় গড়িয়ে নিন। তৈরি মজাদার মিষ্টিকুমড়ার শাহি লাড্ডু। শবে বরাতে এই লাড্ডু বানিয়ে চমকে দিন সবাইকে। না বলে দিলে কেউ বুঝবেই না এটি মিষ্টিকুমড়া দিয়ে তৈরি।

রসনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন