প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যথাশিল্পের পণ্যে ২০ শতাংশ ছাড়

ঐতিহ্যবাহী ও সমকালীন শিল্পকেন্দ্র হিসেবে ‘যথাশিল্প’ যাত্রা শুরু করেছে ২০১৬ সালে। আবহমানকাল ধরে প্রবাহিত বাংলাদেশের নিজস্ব লোকসংস্কৃতিচর্চার অনুকূল ও সময়োপযোগী পরিবেশ গড়ে তোলা, শিল্পের বিভিন্ন শাখার মধ্যে মেলবন্ধন ঘটানো এবং নতুন শিল্পভাষা নির্মাণ এর অন্যতম উদ্দেশ্য।

default-image
বিজ্ঞাপন

এক বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে, যথাশিল্পের কাজের একটি উল্লেখযোগ্য অংশজুড়ে রয়েছে বাংলাদেশের গ্রামের বিভিন্ন লোকশিল্প, যেমন মৃৎশিল্প, বয়নশিল্প, কাঁসা-পিতলশিল্প ইত্যাদি এবং শহরের বিভিন্ন জনপ্রিয় শিল্প (রিকশাচিত্র, সিনেমা ব্যানার পেইন্টিং ইত্যাদি), যা নানা বাস্তব কারণে এখন ম্রিয়মাণ বা বিলুপ্ত হওয়ার পথে।

default-image

যথাশিল্প মনে করে, পরিবর্তিত পরিস্থিতির সঙ্গে সংগতিপূর্ণ উপযুক্ত ও সময়োপযোগী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলে এসব লোকশিল্পীর শিল্পদক্ষতা ও নৈপুণ্য, যা এ দেশের সংস্কৃতির উল্লেখযোগ্য অংশ, তা ধারাবাহিকতা বজায়ে রেখে প্রবহমান থাকবে।

গবেষণা, প্রকাশনা, প্রশিক্ষণ, আবাসিক শিল্পী প্রকল্প ইত্যাদি কার্যক্রমের পাশাপাশি গ্রামের ও শহরের লোকশিল্পীদের কর্মসংস্থান, তাঁদের উত্পাদিত পণ্যের মানোন্নয়ন, দেশে ও দেশের বাইরে সেসব পণ্য বাজারজাতকরণ, নতুন বাজার সৃষ্টির উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের প্রচারণা ইত্যাদি যথাশিল্প করে থাকে। এভাবে দেশের সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিতে যথাশিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে।

default-image

এ বছর ২০২০ সালে চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যথাশিল্পের সব পণ্যের ওপর ২০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়েছে। আদাবরের বায়তুল আমান হাউজিং সোসাইটির ১০ নম্বর সড়কে যথাশিল্প সেন্টার থেকে যে কেউ যেকোনো পণ্য কিনলেই পাবেন ২০ শতাংশ মূল্যছাড়। এ ছাড়া যথাশিল্প ওয়েবসাইট বা ফেসবুকেও এই সুযোগ প্রযোজ্য হবে। এই সুযোগ পাওয়া যাবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0