default-image
বিজ্ঞাপন

স্বাধীনতার ৫০ বছরে পা দিচ্ছে বাংলাদেশ। স্বাধীনতার এই সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দেশব্যাপী চলছে নানা আয়োজন। সে আয়োজনে ফ্যাশন হাউস কে ক্র্যাফট নিয়েছে নানা রকম উদ্যোগ। স্বাধীনতার মহিমাকে পোশাকের মাধ্যমে সমুন্নত করতে কে ক্র্যাফটের এই প্রচেষ্টা। ১ মার্চ থেকে কে ক্র্যাফটের প্রতিটি আউটলেট এবং অনলাইন স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে এসব আয়োজন।

default-image

এবারের আয়োজনে ক্যালিগ্রাফির মাধ্যমে গানের কথা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে পোশাকে। ‘প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ’, ‘সূর্যোদয়ে তুমি সূর্যাস্তেও তুমি ও আমার বাংলাদেশ’, ‘সুন্দর সুবর্ণ তারুণ্য লাবণ্য, অপূর্ব রূপসী রূপেতে অনন্য’, ‘পূর্ব দিগন্তে সূর্য উঠেছে, রক্ত লাল রক্ত লাল’, ‘একটি বাংলাদেশ তুমি জাগ্রত জনতার’ মতো ১০টি জনপ্রিয় দেশাত্মবোধক গান বেছে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া রয়েছে পোশাকে জামদানি মোটিফের ব্যবহার।

স্বাধীনতার গানের কথা যাঁরা গায়ে জড়িয়ে দেশপ্রেমের প্রকাশ ঘটাতে চান, তাঁরা বেছে নিতে পারেন এমন পোশাক। মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয়ের পোশাকে লাল-সবুজ রঙের বৃত্তের বাইরে যাঁরা ভিন্ন কিছু পরতে চান, তাঁদের জন্যই এমন উদ্যোগ।

default-image

সময়, আবহাওয়া ও পরিবেশের কথা মাথায় রেখে সুতি, তাঁত ও লিনেনের মতো আরামদায়ক কাপড় বেছে নেওয়া হয়েছে পোশাকের জন্য। রং হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে সবুজ ও লাল। নিজস্ব উইভিং ডিজাইনে শাড়ি, কুর্তি, টপস, পাঞ্জাবি, টি-শার্ট এবং শিশুদের জন্য নানা পোশাকের সমৃদ্ধ আয়োজন। এ ছাড়া বরাবরের মতোই থাকছে যুগল ও ফ্যামিলি পোশাক।

বিজ্ঞাপন

স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লক প্রিন্ট, টাই ডাই ও হাতের কাজের মাধ্যমে পোশাকে ডিজাইন ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

default-image

এবারের আয়োজন পাওয়া যাচ্ছে কে ক্র্যাফটের ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা, বগুড়া, কুমিল্লা, নারায়ণগঞ্জসহ সব আউটলেটে। এ ছাড়া অনলাইন শপ থেকে স্বাধীনতার আয়োজনের পোশাক কিনতে পারেন বিশেষ সাশ্রয়ী মূল্যে।

কেনাকাটা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন