আইডিপির নেতার বাসায় তল্লাশি, পাসপোর্ট জব্দ

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের (হুজি) সাবেক আমির ও ইসলামিক ডেমোক্রেটিক পার্টির (আইডিপি) আহ্বায়ক মাওলানা শেখ আবদুস সালামের বাসায় তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ একটি পাসপোর্ট, আইডিপির প্যাড ও একটি ডায়েরি জব্দ করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়ার শেরপুর উপজেলা সদরের হামছাপুর এলাকার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ এসব কাগজপত্র জব্দ করে। একই সময়ে জেলার ধুনট উপজেলার পেঁচিবাড়ী গ্রামে তাঁর বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালায়। তবে সেখানে কিছু পাওয়া যায়নি। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলা মামলায় গত রোববার রাতে আবদুস সালাম ঢাকায় গ্রেপ্তার হন। পরদিন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) তাঁকে ছয় দিনের রিমান্ডে নেয়। মামলার অধিকতর তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার আব্দুল কাহার আকন্দের নির্দেশে ওই তল্লাশি চালানো হয়।শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুল ইসলাম বলেন, শহরের হামছাপুরের ধুনট মোড়ে ফাতেমাতুজ্জোহরা বালিকা হাফেজিয়া মাদ্রাসার একটি কক্ষে আবদুস সালাম থাকতেন। দুপুর ১২টার দিকে ওই কক্ষে তল্লাশি চালিয়ে একটি পাসপোর্ট, আইডিপির প্যাড ও একটি ডায়েরি জব্দ করা হয়। এ সময় সেখানে তাঁর পরিবারের কেউ ছিল না।একই সময়ে জেলার ধুনট উপজেলার পেঁচিবাড়ী গ্রামে আবদুস সালামের বাড়িতে এক দল পুলিশ তল্লাশি চালায়। ধুনট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন জানান, সেখানে বসবাস অযোগ্য একটি ছোট টিনের ঘর রয়েছে। ঘরের ভেতর দুটি খাট রয়েছে।আবদুস সালামের ছোট ভাই স্কুলশিক্ষক আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, পরিবারের লোকজনের সঙ্গে আবদুস সালামের তেমন কোনো যোগাযোগ নেই। তিনি বগুড়ার শেরপুর শহরের হামছাপুর এলাকার একটি বাসায় স্ত্রী ও পাঁচ সন্তান নিয়ে বসবাস করেন। তাঁর গ্রেপ্তারের খবর পত্রিকা পড়ে জেনেছি।