বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মারুফ রায়হান

টিপ

সূর্যের ধরনে এক অপার্থিব ডট নীহারিকাপুঞ্জ ছাড়িয়ে আকাশগঙ্গায় সাঁতরে নক্ষত্রের আলোয় স্নান সেরে গড়াতে গড়াতে উড়ে উড়ে এক প্রবল উচ্ছ্বাসে ডুব দিল শেষমেশ এ গ্রহের সুনীল সাগরে;

প্রেমস্পৃষ্ট লুটোপুটি ঝিনুক-ঝংকারে চমৎকার কোরালে তারা মাছে রিমঝিম ঝনৎকারে হাঙরের হাঁয়ে জলকন্যার মুঠো গলে সমুদ্রসফেনে মুক্তোর ফেনিল ফুঁয়ে নীল তিমির পিঠে শুয়ে ফের শূন্যে দিল মোহন উড়াল, আর পুষ্পবৃষ্টি নামল ঊষর ধরিত্রীজুড়ে সব অসুন্দর মুড়ে, আহ্‌;

হে বাঙালি নারী, চিরপ্রিয়তমা, অশেষ লাবণ্যে অপরূপা তোমার সুষমার অংশ হবে বলে ঈর্ষামেশা প্রেমবশত সেই অপার্থিব ডট রক্তিম সূর্যের সূক্ষ্মতম সুখ অবতরণ করল তোমারই মুখাবয়বের প্রকৃষ্ট প্রচ্ছদে, ঋতুময় থিতু হলো;

আর ঢিপঢিপ বুকে ঋষিঋদ্ধ হৃৎস্পন্দনে আমরা তাকে ডেকে উঠলাম:

টিপ!

নিষাদ নয়ন

অগম অথবা মনে নেই

আমাদের করোটির ভেতর ঢুকে যাচ্ছে, প্রিয় রং, হাড়ের

কঙ্কাল, প্রিয়তার হারানো ভেলভেটিন আস্তিন, চেনা মুখ

আমাদের ফেলে আসা তালগাছে কাকেরা বাসা করে বলেই

বাবুই পাখি উড়ে যাচ্ছে দূরত্বের বিশাল ক্যানভাসে, আকাশে

আমাদের মনে কামন ও কুঞ্চন ফুটে থাকে, করবীর ফুলন্ত

শরীরে তাই কুসুম ফোটে ও ফুলকলিদের হলুদ বসন্ত হাসে

আমাদের এখন মনে পড়ে না, মনে থাকে না, কামজ-কামট

একে একে কত কিছু খেয়ে ফেলে, খোয়াই ভেঙে শুধু ওড়ে ঘুম

আমাদের শরীর হালকা বেলুনের মতো ফুলে থাকে কপটতায়

হয়তো কোমল রোদের বিকেল লাল সড়ক ভালোবাসে, হাসে

অন্য আলো থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন