default-image

লেম্বুগাছে ধরে লেম্বু ওই না জোড়া গাছে, সেই লেম্বু পাড়িয়া দিমু হাত ধরিও লাজে। লেম্বুগাছের পাশে কন্যা চিরল–বিরল পথ, সেই না পন্থে আইসো তুমি জানিও তোমার মত।

লেবইরগাছে ধরে লেবইর ওই না উজান দেশে, উজান দেশের কন্যা তুমি ফুল গুঁজিও কেশে। লেবইরগাছের তলায় বাড়ে লম্বা সবুজ ঘাস, উজান দেশের কন্যা তুমি, মনের মাঝে বাস।

লিচুগাছে ধরে লিচু ওই না ঘরের ধারে, সেই লিচু পাড়িতে তুমি খবর দিবা কারে! লিচুগাছের পঙ্খি আমি ফল পাকিবার কালে, সেই লিচু পাড়িয়া দিমু রং ধরিব গালে।

বিজ্ঞাপন

জামরুলগাছে ধরে জামরুল ওই না দূরের বনে, জামরুল ফুলের দেহ তোমার ফুল ফুটিছে মনে। ওই না ফুলের ঘ্রাণে কন্যা, ওই না ফলের স্বাদে, তোমার তরে নিশিরাতে মনটা আমার কাঁদে।

বরইগাছে পাকে বরই তোমার বাড়ির ধারে, সেই বরই শুকাইতে দিবা পুবের পুকুরপাড়ে। বরইগাছে দিমু ইটা ঝরঝরাইয়া পড়ে, সেই বরই তুকাইয়া দিতে যাইমু তোমার ঘরে।

ফল ধরিবে ফল পাকিবে বাড়ির গাছে গাছে, পুবের পুকুর খলবলাবে নয়া মাছে মাছে। তুমি আমার হইয়ো কন্যা আসছে ফলের মাসে, আমি তোমার নাম লিখিমু ভিন্না ঘাসে ঘাসে।

কবিতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন