দুপুর পর্যন্ত পুরোপুরি নীরব থাকার পর সেলফোনটা বেজে উঠল। অনামিকার কণ্ঠ শুনে রাতুল একটু অভিমান করেই বলল, মনে পড়ল, তাহলে !
বাহ্ ! একটিবার চিন্তা করেছ, ফোন দিতে কেন দেরি হচ্ছে ?
আমি তো ভাবতে ভাবতেই ফোনের সময় পার!
ভালো! এই চলো না আজ দেখা করি। বহুদিন তোমার সাথে দেখা নেই !
লকডাউনে! কীভাবে ?
তুমি আমাদের বাসার আমগাছটার তলায় এসে ফোন দিয়ো।
হুমম...হামম্...ওকে ।

রাতুল সন্ধের দিকে আমগাছটার তলায় গিয়ে অনামিকাকে ফোন দিল। কিছুক্ষণ যেতেই অনামিকা এল। ধবধবে সাদা পোশাকে ওকে পরীর মতো লাগছিল। কারও মুখে কোনো কথা নেই! তিন ফুট দূরত্বের ভালোবাসা অশ্রুতে রূপ নিল। না ছোঁয়া ভালোবাসা মাস্কের ভেতর দুমড়ে যাচ্ছিল!

[নিয়ম: ১০০ শব্দের গল্প লিখুন প্রথম আলোর সাহিত্য অনলাইন ম্যাগাজিন অন্যআলো ডটকমের জন্য। নিজের ফেসবুকের টাইমলাইনে পাবলিক করে প্রকাশ করুন। #শশব্দগল্প #ছোট্টগল্প #অন্যআলো দিতে পারেন। এই তিনটা হ্যাশট্যাগের যেকোনো একটা থাকলে আমরা ধরে নেব এটা আপনারা অন্যআলো ডটকমে প্রকাশ করতে দিতে রাজি আছেন। আপনি গল্প লিখে ফেসবুকের সাত বন্ধুকে চ্যালেঞ্জ জানাবেন। তাঁদের ট্যাগ করবেন। যাঁদের ট্যাগ করবেন, তাঁরা আবার শত শব্দের একটা গল্প নিজেদের টাইমলাইনে পোস্ট করবেন। আর নিয়মকানুনগুলো গল্পের নিচে কপি পেস্ট করে দেবেন। পেশাদার লেখক হতে হবে, এমন নয়। বরং নতুন প্রতিভা, নতুন লেখক লেখা শুরু করুক...। কেউ সরাসরিও লেখা পাঠাতে পারেন: info@onnoalo.com, alimazij@gmail.com]

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0