বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুপারিশ গত নভেম্বরে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অনুমোদন পায়। উত্তরণের ক্ষেত্রে পাঁচ বছর প্রস্তুতির সময় পাবে। অর্থাৎ ২০২৬ সালের ২৪ নভেম্বর বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে গণ্য হবে। বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হলে দেশের সর্বস্তরের মানুষ তার সুবিধা পাবে, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও বাংলাদেশের অবস্থান আরও সুদৃঢ় হবে। এটি আমাদের সবার জন্যই আনন্দ ও গর্বের বিষয়।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন, উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে গ্র্যাজুয়েশনপ্রাপ্তিকে টেকসই করতে উত্তরণের সম্ভাবনাগুলোকে কাজে লাগানোর পাশাপাশি ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সরকার একটি ‘জাতীয় সরল উত্তরণ কৌশল’ নির্ধারণের কাজে হাত দিয়েছে। আমরা মনে করি, কৌশলটি দ্রুত চূড়ান্ত করা দরকার। উন্নয়নশীল দেশ হলে বর্তমানে বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে যেসব সুবিধা আমরা পাই, তা সংকুচিত হবে, বৈদেশিক সহায়তাও কমে যাবে। রপ্তানির ক্ষেত্রে আমাদের মুক্ত প্রতিযোগিতায় অবতীর্ণ হতে হবে। সে ক্ষেত্রে বৈদেশিক বাণিজ্যের পরিধি ও সক্ষমতা বাড়াতে হবে। তবে এ কথাও সত্য, প্রতিযোগিতা অনেক সময় নতুন সুযোগও তৈরি করে। একসময় আমরা তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে কোটা সুবিধা পেতাম। বর্তমানে সেই সুবিধা না থাকা সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে আমাদের তৈরি পোশাকের রপ্তানি উত্তরোত্তর বেড়ে চলেছে।

তবে উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাইরের চ্যালেঞ্জের চেয়েও ভেতরের চ্যালেঞ্জ অনেক বেশি। বিশেষ করে, যেকোনো দেশে টেকসই উন্নয়নের জন্য যেসব পূর্বশর্ত পূরণ করা জরুরি, তার মধ্যে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, সুশাসন, দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন ও গণতন্ত্র উল্লেখযোগ্য। এর কোনো একটির ঘাটতি বা অনুপস্থিতি উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকে ব্যাহত করবে। স্বীকার করতে হবে যে অর্থনৈতিকভাবে আমাদের অনেক অগ্রগতি থাকলেও আইনের শাসনের ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছি। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাও অত্যন্ত নড়বড়ে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও নির্বাচনী বিতর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে না পারা দুর্ভাগ্যজনক। ২০২২ সালের সূচনায় ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলের নেতাদের কথাবার্তায় রাজনৈতিক অঙ্গনে নতুন করে ঝোড়ো হাওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

উন্নয়নের সঙ্গে বৃহত্তর জনগণের জীবনমানের উন্নয়নের দিকেও সরকারকে মনোযোগী হতে হবে। তাদের উপলব্ধি করতে হবে টেকসই উন্নয়নের জন্য রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা অপরিহার্য।

সম্পাদকীয় থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন