অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, ঢাকা মহানগরে কার্যকর ইয়েলো ক্যাব বা ট্যাক্সি সার্ভিস নেই। স্বচ্ছন্দে যাতায়াতের জন্য নগরবাসীকে সিএনজি নামে পরিচিত থ্রি হুইলারের ওপর নির্ভর করতে হয়। এই নির্ভরতার কারণে সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালকেরাও যাত্রীদের কাছ থেকে তিন–চার গুণ বেশি ভাড়া আদায় করছেন; যদিও তঁাদের মিটারে ভাড়া আদায়ের কথা।

জানা গেছে, এখন একটি সিএনজি নামাতে প্রায় ২০ লাখ টাকা খরচ হয়; যদিও একটি সিএনজির দাম প্রায় চার লাখ টাকা! যাত্রীদের কাছ থেকে তিন থেকে চার গুণ বেশি ভাড়া আদায় করে এই অতিরিক্ত খরচ উশুল করা হয়। সরকার জঙ্গির মতো
কঠিন সমস্যার সমাধান করতে সমর্থ হলেও সিএনজি মালিক/চালকদের দৌরাত্ম্য কেন বন্ধ করতে পারছে না; সেটাই প্রশ্ন।

 এ ছাড়া সিএনজি নামক বাহনটি আরামদায়ক নয়। এই অবস্থায় শহরে যদি বিপুল হারে গণ ও ব্যক্তিগত ভাড়ায় চালিত ট্যাক্সি নামানো হয়
এবং সেগুলো মিটারে চলতে বাধ্য করা যায়, তাহলে মানুষের দুর্ভোগ অনেকটা লাঘব হবে।

মো. আলী হায়দার

পল্লবী, ঢাকা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0