বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তাদের কথামতো ১৫টি গ্রুপ আছে এবং প্রত্যেক গ্রুপে সদস্যসংখ্যা ৪০০। এক মাস পর, অর্থাৎ ১৬ অক্টোবর তারা রাতে পেমেন্ট দেওয়ার কথা বলে এবং পেমেন্ট রেজিস্ট্রেশনের জন্য আরও ১০০ টাকা দিতে হবে বলে জানায়। টাকা পাওয়ার লোভে পড়ে সবাই আবারও ১০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে। কথা ছিল ১৭ অক্টোবর সকাল আটটায় টাকা দেবে, কিন্তু সকালে উঠে দেখি গ্রুপ থেকে রিমুভ করা হয়েছে সবাইকে। তাদের ফেসবুক আইডিও ডিঅ্যাকটিভ। এখানে আমাদের ধোঁকা দেওয়া হয়েছে। ইমোশনাল ব্ল্যাকমেল করা হয়েছে।

হিসাব করলে দেখা যাবে, ১৫টি গ্রুপে ৪০০ জন সদস্য হলে সর্বমোট সদস্য ৬ হাজার; টাকা সর্বমোট ১২ লাখের মতো। এই প্রতারণাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া না হলে তারা আরও বেশি মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করবে। এ অবস্থায় আর কেউ যাতে প্রতারণার শিকার না হয়, সেদিকে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

ফাহিমা আক্তার
শেরপুর, মৌলভীবাজার

চিঠি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন