বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ‘একদিন আমার মায়ের সঙ্গে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে গেলে তাঁদের মুরগি এবং মুরগির বাচ্চা আমার খুব পছন্দ হয়ে যায়। সেটি বঙ্গমাতা টের পেয়েছিলেন। কিন্তু মায়ের কারণে বাসায় আনতে পারিনি। কাঁদতে কাঁদতে সেদিন বাসায় ফিরেছিলাম। কিছুক্ষণ পরে দেখি, মুরগি ও মুরগির বাচ্চা আমার বাসায় পৌঁছে দিয়েছেন। এটাই ছিল শিশুদের প্রতি বঙ্গমাতার ভালোবাসা।’

যুবলীগ এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা শিশু হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, মাজেদা হাসপাতাল অক্সিজেন ব্যাংক, শেখ ফজলুল হক মনি ও আরজু মনি অক্সিজেন ব্যাংককে (যশোর) ১২০ কেজি ওজনের ১০টি করে সিলিন্ডার সরবরাহ করা হয়েছে। গাজীপুর মহানগর যুবলীগ, পাবনা জেলা যুবলীগ, কুমিল্লা মহানগর যুবলীগ, খুলনা মহানগর যুবলীগ, মাগুরা জেলা যুবলীগ, লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগ, সিলেট মহানগর যুবলীগ, ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগ, পটুয়াখালী জেলা যুবলীগ, কুড়িগ্রাম জেলা যুবলীগ, চাঁদপুর জেলা যুবলীগ ও শরীয়তপুর জেলা যুবলীগের অক্সিজেন ব্যাংকে ৩০ কেজি ওজনের ৫টি করে অক্সিজেন সিলিন্ডার দেওয়া হয়েছে আজ।

‘বিনা মূল্যে অক্সিজেন সেবা’ শিরোনামের এ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান। তিনি বলেন, যুবলীগের কর্মীরা অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিয়েছেন, রেশনিং পদ্ধতিতে খাদ্যসহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন, পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপণ করছেন, করোনায় মৃতদের দাফন কর্মে অংশগ্রহণ করছেন, ফ্রি টেলিমেডিসিন ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এসব কিছুর ধারাবাহিকতায় আজকের এই বিনা মূল্যে অক্সিজেন সেবা কার্যক্রম।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মামুনুর রশীদ, খালেদ শওকত আলী, সাজ্জাদ হায়দার লিটন, মোয়াজ্জেম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মতিউর রহমান, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন