বিজ্ঞাপন

গতকাল বুধবার রাতে জেলার ফটিকছড়ি থেকে আমিনুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আমিনুল হেফাজতে ইসলামের হাটহাজারী পৌরসভা শাখার দাওয়াবিষয়ক সম্পাদক।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক আজ বৃহস্পতিবার প্রথম আলোকে বলেন, হাটহাজারীতে সহিংসতার ঘটনার অন্যতম আসামি আমিনুল। নেতৃত্বদানকারী কয়েকজনের মধ্যে একজন ছিলেন তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তাঁকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে ঢাকার বায়তুল মোকাররমের মুসল্লিদের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষ হয়। পুলিশের সঙ্গে গুলিতে হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন। এতে বিক্ষুব্ধ মাদ্রাসার ছাত্ররা হাটহাজারী থানা ভবন, ভূমি অফিস ও ডাকবাংলোতে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন।

এ ঘটনায় হাটহাজারী থানায় সাড়ে চার হাজারজনকে আসামি করে ১০টি মামলা করে পুলিশ। এর মধ্যে জুনায়েদ বাবুনগরীসহ ১৪৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। ১০ মামলায় এখন পর্যন্ত ৭৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ছয়জন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন