বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কে এম নূরুল হুদা বলেন, ‘আমার অঞ্চলভিত্তিক কথা বলা ঠিক হবে না। কিন্তু যেসব এলাকায় এসব ঘটনা (সহিংসতা) ঘটেছে, সেগুলো আসলেই একটা অস্থিতিশীল পরিস্থিতির জায়গা। এসব জায়গায় এ রকম ঘটনা ঘটে।’

এদিকে স্থানীয় সরকারের সাম্প্রতিক নির্বাচন নিয়ে গতকাল রোববার সংবাদ সম্মেলন করে জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছিলেন, প্রকৃতপক্ষে নির্বাচন এখন আইসিইউতে থাকার মতো অবস্থায়। আর এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে গণতন্ত্র লাইফ সাপোর্টে রয়েছে।

এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সিইসি বলেন, ‘উনি যে কথাগুলো ব্যবহার করেছেন, সেগুলো শালীনতাবহির্ভূত। আইসিইউ, লাইফ সাপোর্ট—এ কথাগুলো শালীন মনে করি না।’ অবশ্য মাহবুব তালুকদারের অনুপস্থিতিতে কথা বলতে চাননি সিইসি।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই লিখিত বক্তব্যে গণমাধ্যমে প্রচারিত বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনা উল্লেখ করে সিইসি বলেন, সারা দেশে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তবে এসব প্রাণহানির ঘটনার সবগুলো নির্বাচনী সংঘর্ষের কারণে হয়েছে কি না, তা অনুসন্ধানের দাবি রাখে। এর মধ্যে মাত্র কয়েকটি ঘটনা ভোটকেন্দ্রে বা ভোটের দিন ঘটেছে। কোনো ঘটনা নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার আগেই ঘটেছে, আবার কোনোটা রাতের আঁধারে ঘটেছে।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন