default-image

জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে সরকার ঈদের আগে লকডাউন শিথিলেরও চিন্তাভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আজ সোমবার এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, ঈদের সময় ঘরমুখী মানুষের যাতায়াতের জন্য লকডাউন শিথিল হতে পারে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে সরকার সারা দেশে আরও এক সপ্তাহ সর্বাত্মক লকডাউন বাড়ানোর সক্রিয় চিন্তাভাবনা করছে।

পরিবহনশ্রমিকসহ বেকার শ্রমিকদের সরকার আর্থিক সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি সবাইকে মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে ও ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান। তিনি দলীয়ভাবে ভাসমান মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করতে সর্বস্তরের নেতা–কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদের এর আগে রংপুর সড়ক জোন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।এ সময় তিনি বলেন, সামনে ঈদ ও বর্ষাকাল। চলমান লকডাউনে সড়ক ফাঁকা থাকায় এখনই সড়ক মেরামত করার উপযুক্ত সময়।

বাংলাদেশ কৃষক লীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ওবায়দুল কাদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, কৃষি ও কৃষকের কল্যাণে যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে খাদ্য ঘাটতির বাংলাদেশকে খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি গতবারের মতো এবারও কৃষকদের ধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়ার জন্য নেতা–কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

আজ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত এক সভায় লকডাউন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হয়। সেখানে লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় ১৪ এপ্রিল থেকে লকডাউন চলছে। ২১ এপ্রিল তা শেষ হওয়ার কথা। এর আগে ৫ এপ্রিল থেকে শর্ত সাপেক্ষে বিধিনিষেধ চলছিল। আরও সাত দিন বাড়ালে লকডাউন চলবে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন