চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতায় জনমনে সৃষ্ট উদ্বেগ থেকে আগামীকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় সংবাদ সম্মেলন করবে নাগরিক সমাজ। সেখানে সম্প্রতি নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনকে দেওয়া চিঠির বিষয়ে আলোচনা করা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশিষ্ট নাগরিকদের পক্ষে এক বিজ্ঞপ্তিতে সুজনের সহযোগী সমন্বয়কারী সানজিদা হক এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে চলমান সহিংসতার কারণে নাগরিকদের নিরাপত্তা চরমভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। একই সঙ্গে বিরাজমান রাজনৈতিক সমস্যাও এক অস্থির ও অনিশ্চিত পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। এমনি পরিস্থিতিতে অনেক নাগরিকই চিন্তিত ও উদ্বিগ্ন। বলা হয়, ‘আমরা নিজেরাও উদ্বিগ্ন।’

এই উদ্বেগ থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনের কাছে দেওয়া চিঠি সম্পর্কে আলোকপাত করা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সংবাদ সম্মেলনে এ টি এম শামসুল হুদা, এম হাফিজউদ্দিন খান, আকবর আলি খান, সিএম শফি সামী, শাহদীন মালিক, সৈয়দ আবুল মকসুদ ও বদিউল আলম মজুমদারসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত থাকবেন।

৯ ফেব্রুয়ারি সংলাপের উদ্যোগ নিতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিঠি দিয়ে অনুরোধ জানায় নাগরিক সমাজ। এর আগে ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নাগরিকদের একটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের বক্তব্যের আলোকে ও ঐকমত্যের ভিত্তিতে ‘জাতীয় সংকট নিরসনে জাতীয় সংলাপ’ শীর্ষক প্রস্তাব গৃহীত হয়।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন