default-image

স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪৮ দলীয় প্রার্থী​র মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে বিএনপি। এর মধ্যে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ জন এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে ৩৭ জন প্রার্থী রয়েছেন। মনোনীতদের তালিকা তৃণমূলে পাঠানো হয়েছে।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পেয়েছেন নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলায় মকলেছুর রহমান, যশোর সদর উপজেলায় নুর উন-নবী, খুলনার পাইকগাছায় আবদুল মজিদ, বাগেরহাটের শরণখোলায় মতিয়ার রহমান খান, সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় নরুল হক আফিন্দী, চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় আবদুস শুক্কুর পাটোয়ারি, মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় নাদীরা আক্তার ও কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় সাইফুল আলম।

এ ছাড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দিনাজপুর সদরে রাশেদুজ্জামান রাশেদ, দাউদকান্দিতে ফরিদা ইয়াছমিন ও রুহুল আমিনকে বিএনপির মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩৭ প্রার্থী হলেন কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার বড়িবাড়ি ইউনিয়নে সোহরাব হোসেন মীর, সিলেটের গোলাপগ​ঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপাশা ইউপিতে আফজাল হোসেন, ওসমানী নগর উপজেলার সাদীপুর ইউপিতে আবদুর রফ আল মামুন, চাঁদপুরের কচুয়ার সাচার ইউপিতে আসকার আলী, লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউপিতে অলি উল্যা, ফটিকছড়ির সুয়াবিল ইউপিতে মো. ইয়াকুব, সন্দ্বীপের হারামিয়া ইউপিতে আসিফ আকতার, শ্রীমঙ্গলের মির্জাপুর ইউপিতে সুফি মিয়া, মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউপিতে পারভেজ হোসেন চৌধুরী, বরুড়া উপজেলার আদ্র ইউপিতে পারভেজ হোসেন, শাহরাস্তি উপজেলার মেহের দক্ষিণ ইউপিতে মাসুদ করিম, মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউপিতে সেলিম সরকার, জহিরাবাদ ইউনিয়নে আক্তার হোসেন, কচুয়া উপজেলার গেইট উত্তর ইউপিতে মোস্তফা কামাল, রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউপিতে নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর সদরের চন্দ্রগঞ্জ ইউপিতে তোফায়েল আহমেদ, ফটিকছড়ির নানুপুর ইউপিতে জয়নাল আবেদিন, লোহাগড়ার আধুনগর ইউপিতে আবু নাসের চৌধুরী, লোহাগড়া ইউপিতে খোরশেদ আলম শিকদার, চিরির বন্দর উপজেলার সাতনালা ইউপিতে এনামুল হক, হাতিবান্ধা উপজেলার পাটিকাপাড়া ইউপিতে সফিয়ার রহমান, গড্ডিমারী ইউপিতে আবু তাহের মো. শফিকুল ইসলাম, দলগ্রাম ইউপিতে মোহাম্মদ ইকবাল আযম, রংপুর সদরের চন্দনপাট ইউপিতে মেরাজুল ইসলাম, নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউপিতে সাদির আহমেদ, শাহজাদপুর উপজেলার পোরজানা ইউপিতে রাকিবুল হাসান, ভঙ্গুড়া উপজেলার মন্ডতোষ ইউপিতে আকরাম হোসেন, পাবনার ভঙ্গুড়া সদর ইউপিতে জাহাঙ্গীর আলম, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউপিতে আকতার হোসেন, আলমডাঙা উপজেলার ডাউকী ইউপিতে মো. ইউনুছ আলী, কালিগঞ্জ উপজেলার নাগরী ইউপিতে রহিম সরকার, ফরিদপুরের মধুখালি উপজেলার কোরকদি ইউপিতে মেহেদী হাসান, ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিযার ইউপিতে মো. আবু হানিফ, বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠী ইউপিতে শওকত হোসেন হাওলাদার, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ী ইউপিতে আমিনুল ইসলাম খান, নান্দাইল উপজেলার শেরপুর ইউপিতে মো. জিয়া উদ্দিন, ফুলবাড়িয়া উপজেলার বালিয়ান ইউনিয়নে শেখ মো. মিজানুর রহমান।

বিজ্ঞাপন

করোনার কারণে গত মার্চ মাস থেকে স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন নির্বাচন স্থগিত রেখেছিল নির্বাচন কমিশন। অক্টোবরে স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলো শুরু হচ্ছে। কিছু ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা পরিষদে সাধারণ নির্বাচন হলেও বেশির ভাগই উপনির্বাচন। আগামী ডিসেম্বর নাগাদ পৌরসভার নির্বাচন শুরু করতে চায় নির্বাচন কমিশন।

মন্তব্য পড়ুন 0