আজ রোববার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘প্রান্তিক পোলট্রি খামারিদের দুদর্শা এবং তা থেকে মুক্তির উপায়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় জাফরুল্লাহ চৌধুরী এ কথা বলেন।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী ১০ লাখ লোকের সমাবেশের টাকা দিয়ে পোলট্রি খামারিদের ৮ লাখ মুরগি কিনে বিতরণ করে দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘প্রান্তিক খামারিরা না বাঁচলে দেশ বাঁচবে না। শিক্ষিত অনেক মানুষ এই খামারের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন। প্রান্তিক পোলট্রি খামারিরা দেশের পুষ্টির জোগান দিচ্ছেন।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘প্রান্তিক মানুষের দিকে নজর দিন। এরাই আপনার ভিত হবে। এরাই আপনাকে বাঁচাবে। নয়তো খালেদা জিয়ার মতো আপনিও কোর্টে কোর্টে ঘুরতে থাকবেন।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম পোলট্রি খাতের জন্য জাতীয় নীতিমালা করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, শুধু পুঁজিবাদীদের দিয়ে দেশের উন্নয়ন সম্ভব না। প্রান্তিক মানুষের কথাও ভাবতে হবে।
সভায় আরও বক্তব্যে দেন দ্য নিউ নেশন পত্রিকার সাবেক সম্পাদক মোস্তফা কামাল মজুমদার, বাংলাদেশ প্রান্তিক পোলট্রি খামারি ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান বাশার, মহাসচিব কাজী মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন