বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদেরের হাসপাতাল ছাড়ার তথ্য প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন বিএসএমএমইউর উপাচার্য মো. শারফুদ্দিন আহমদ।

শারফুদ্দিন আহমদ বলেন, আজ সকাল ১০টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে ছাড়পত্র দেয় বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ।

অসুস্থ হওয়ার পর ওবায়দুল কাদেরকে ১৪ ডিসেম্বর সকালে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি হাসপাতালের ৩১২ নম্বর ভিআইপি কেবিনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বিএসএমএমইউর উপাচার্য প্রথম আলোকে বলেন, ওবায়দুল কাদের সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তাঁর রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। তাঁর শারীরিক কোনো সমস্যা নেই। তাই তাঁকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

বুকে ব্যথা নিয়ে ১৪ ডিসেম্বর বিএসএমএমইউ হাসপাতালে গিয়েছিলেন ওবায়দুল কাদের। পরে তাঁর ব্যথা কমে যায়।

ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসায় বিএসএমএমইউর উপাচার্যের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছিল।

শারফুদ্দিন আহমদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘কাজের চাপের কারণে তাঁর সমস্যা হয়েছিল। তাঁর বিশ্রামের দরকার ছিল। সেটা পাওয়ার পর তিনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন।’

২০১৯ সালের মার্চে ওবায়দুল কাদের গুরুতর অসুস্থ হয়ে বিএসএমএমইউর করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর অ্যানজিওগ্রামে তাঁর করোনারি ধমনিতে তিনটি ব্লক পেয়েছিলেন চিকিৎসকেরা, যার মধ্যে একটি অপসারণ করা হয়। এরপর তাঁকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দুই মাসের বেশি সময় ধরে তাঁর চিকিৎসা চলে।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন