বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পোর খাওয়া এবং কর্মীবান্ধব একজনকে মহাসচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে জাপার ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বলেন, এমন ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে হবে, যিনি জাতীয় পার্টিকে মূল লক্ষ্যে পৌঁছে দেবেন। মহাসচিব নির্বাচন করতে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চেয়ারম্যানের নিজস্ব ক্ষমতা রয়েছে, তারপরও তিনি এ বিষয়ে দলের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন।

দলের মহাসচিব হতে চান না জানিয়ে সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান বলেন, দলকে শক্তিশালী করার জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। জাপাকে আরেকবার ক্ষমতায় যেতে হবে।

খুলনা সিলেট বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব সাহিদুর রহমান বলেন, ভুল করুক আর শুদ্ধ করুক, নেতার সিদ্ধান্তই মেনে নিতে হবে। এটাই নিয়ম।

স্মরণসভায় জি এম কাদের জিয়াউদ্দিন বাবলুর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের নানা বিষয় তুলে ধরেন। তিনি বলেন, জিয়াউদ্দিন বাবলু সাধারণ জনগণের মানুষ ছিলেন। জাতীয় পার্টি সক্রিয় দল হতে চায়, যেটা তাঁর স্বপ্ন ছিল।

জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, জি এম কাদেরের নেতৃত্বে ক্ষমতায় যাওয়া জিয়াউদ্দিন বাবলুর স্বপ্ন ছিল। এ জন্য দলের নেতা–কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

স্মরণসভায় উপস্থিত দলের শীর্ষস্থানীয় অনেক নেতা জিয়াউদ্দিন বাবলুর রাজনৈতিক কর্মময় জীবনের স্মৃতিচারণা করেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন