default-image

ক্ষমতা দখলের জন্য একটা শ্রেণি উঠেপড়ে লেগেছে। তারা জানে না, বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী কারও অবৈধ ক্ষমতা দখল করার সুযোগ নেই। আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে স্বাধীনতা পরিষদের এক আলোচনা সভায় এমন মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।
নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ করে কামরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, তাঁরা উসকানি দিয়ে সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করতে চান। কোনো অবস্থাতেই সেনাবাহিনীকে বিভ্রান্ত করতে পারবেন না। তাঁদের ঐক্য বিনষ্ট করতে পারবেন না। সেনাবাহিনী গণতন্ত্র ও দেশ রক্ষায় অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকা পালন করছেন।
সভায় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদাকে ছাড়লেই বিএনপি মানুষের কাছে যেতে পারবে। বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়ে ঢাকায় ১০ জন লোকও জড়ো করতে পারেননি খালেদা জিয়া। এ ব্যর্থতার দায়ে তাঁকে বিএনপির চেয়ারপারসন ও ২০-দলীয় জোটের নেত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।

নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘দয়া করে সংলাপের কথা বলবেন না। আপনারা বিএনপির সঙ্গে সংলাপের কথা বলে তাদের সন্ত্রাসে উৎসাহ জোগাচ্ছেন। আপনারা বরং বিএনপির এই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন।’ ২০১৯ সালের আগে মান্না সাহেবদের আশা পূরণ হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এতে সভাপতিত্ব করেন স্বাধীনতা পরিষদ নামের সংগঠনটির উপদেষ্টা হাসিবুর রহমান।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন