বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হয়ে পরে ছাড়া পান ছাত্রদলের নিহত নেতা নুরুজ্জামান ওরফে জনির পরিবারের তিন সদস্য। আজ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের সামনে থেকে জনির বাবা ইয়াকুব আলী এবং জনির মা ও স্ত্রীকে পুলিশ নিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

গুলশান থানার ডিউটি অফিসার ফেরদৌস প্রথম আলোকে জানান, ওই তিনজনকে গোয়েন্দা পুলিশ গুলশান থানায় নিয়ে এসেছিল। কিছুক্ষণ পর তাঁদের আবার ছেড়ে দেওয়া হয়।
এর আগে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের সামনে থেকে ছাত্রদলের নেত্রী সেলিনা সুলতানাকে পুলিশ আটক করে। এ ছাড়া বিএনপিপন্থী সাংবাদিক নেতাদের একটি দল খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যেতে চাইলে পুলিশ তাঁদের ঢুকতে দেয়নি।
নুরুজ্জামান ওরফে জনি (৩০) গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গত ১৯ জানুয়ারি গভীর রাতে নিহত হন। তিনি খিলগাঁও থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। স্বজনদের অভিযোগ, তাঁকে ধরে নিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে।
জনির পরিবারের সদস্যরা আজ রাত আটটার দিকে খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গেলে পুলিশ তাঁদের কার্যালয়ে যেতে বাধা দেয়। তাঁরা অনেকক্ষণ সেখানে দাঁড়িয়ে থেকে ভেতরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে ভেতরে ঢুকতে ব্যর্থ হয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় উঠলে পুলিশও তাঁদের সঙ্গে অটো রিকশায় উঠে তাঁদের গুলশান থানায় নিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন