default-image

গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ের সীমানাপ্রাচীরের ওপর কাঁটাতারের বেড়া দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে আজ রোববার বিএনপির পক্ষ থেকে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
রাজধানীর গুলশান-২-এর ৮৬ নম্বর সড়কের ৬ নম্বর ভবনটি খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়। গত ৩ জানুয়ারি থেকে ওই কার্যালয়ে অবস্থান করছেন খালেদা জিয়া। তাঁর কার্যালয়ের দক্ষিণ ও পূর্ব পাশে দুটি ভবন রয়েছে। আর পশ্চিম ও দক্ষিণ পাশে রাস্তা। ওই দুই পাশে সীমানাপ্রাচীরের ওপর কাঁটাতারের বেড়া দেওয়া হয়। এমনিতে সীমানাপ্রাচীরের ওপর লোহার কাঁটা দেওয়া আছে। এই কাঁটার ওপর নতুন করে কাঁটাতারের বেড়া বসানো হয়েছে।
ওই কার্যালয়ে অবস্থানরত বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান প্রথম আলোকে বলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। দুষ্কৃতকারীরা যাতে দেয়াল টপকে ভেতরে যেতে না পারে, সে জন্য এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি দাবি করেন, দুদিন আগে একজন দেয়াল টপকে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করেছিল। আজ দুপুরেও একজন একই ধরনের চেষ্টা করেছিল।
খালেদা জিয়ার কার্যালয় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ এখন আর নেই। তবে কারা কার্যালয়ে যাতায়াত করছেন, তা লিখে রাখছে গোয়েন্দা পুলিশ। অবশ্য গত তিন দিনে দলের উল্লেখযোগ্য কোনো নেতা চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেননি।
৩১ জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে কেব্‌ল টেলিভিশন (ডিশ) ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কও দুর্বল। এটা পুনঃস্থাপন করা হয়নি। ফলে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ও ফ্যাক্স ব্যবহার করা যাচ্ছে না। তবে সরকারি মালিকাধীন মুঠোফোন কোম্পানি টেলিটকের নেটওয়ার্ক পাওয়া যায়। অবশ্য টেলিটক থেকে ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়া যায় না।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন