খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতে নেতাদের রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি: বিএনপি

বিজ্ঞাপন
default-image

ঈদের দিন রাতে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি বলে জানিয়েছে দলটি। সাক্ষাতে রাজনৈতিক আলোচনা নিয়ে দুটি পত্রিকায় ছাপা সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে তারা। আজ বুধবার বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর পাঠানো এক বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, খালেদা জিয়ার সঙ্গে দলের স্থায়ী কমিটির নেতাদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়কালে রাজনৈতিক আলোচনা হয়েছে, এমন সংবাদ দেশের দুটি পত্রিকায় ছাপা হয়েছে। ওই সংবাদ মিথ্যা, মনগড়া ও ভিত্তিহীন। খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্থায়ী কমিটির সদস্যদের শুধু ঈদ শুভেচ্ছা ও পারস্পরিক কুশলাদি বিনিময় হয়েছে। খালেদা জিয়ার সর্বশেষ স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নিয়েছেন নেতারা।

বিএনপি বলছে, খালেদা জিয়ার সঙ্গে নেতাদের কোনো রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি বা তিনিও কোনো রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত প্রদান করেননি। কোনো প্রকার তথ্য যাচাই ছাড়া এ ধরনের দায়িত্বহীন সংবাদ পরিবেশন করলে জনমনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়। দলটি আরও জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিএনপিকে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে বানোয়াট এবং বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ পরিবেশন করে আসছে। যা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বিএনপি এ ধরনের সংবাদ পরিবেশনের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

১ আগস্ট রাজধানীর গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসা ‘ফিরোজায়’ রাত সাড়ে ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা সাক্ষাৎ করেন। এ সাক্ষাৎ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছাপা সংবাদ বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আজ প্রথম আলোকে বলেন, ‘এটি সঠিক নয়, বানোয়াট সংবাদ। জাতীয় ঐক্যের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা এবং ম্যাডাম সম্পর্কে একটি ভুল ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা। যে আলোচনা হয়েছে, তা সেদিনই আমি ব্রিফিং করে বলেছি। উনি অসুস্থ, রাজনৈতিক বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেননি।’

বিএনপির একটি সূত্র জানায়, দলের মধ্যে ব্যক্তিস্বার্থের দ্বন্দ্ব থেকেই কেউ কেউ এ ধরনের কথা ছড়াচ্ছেন। খালেদা জিয়া নির্বাহী আদেশে মুক্তি পেয়েছেন ছয় মাসের জন্য। তিনি রাজনৈতিক কোনো বক্তব্য দিচ্ছেন না। যেসব কথা বলা হচ্ছে, তা খালেদা জিয়ার জন্য ক্ষতিকর।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন