default-image

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া দিল্লিতে গিয়ে গঙ্গার পানির কথা বলতে ভুলে গিয়েছিলেন। যাদের নেত্রী দিল্লিতে গিয়ে গঙ্গার পানির কথা বলতে ভুলে যান, তাদের নেতারাই আবার তিস্তার পানি নিয়ে কথা বলেন। বিএনপির এ নিয়ে কথা বলার অধিকার নেই।
ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে শনিবার ‘মহাকাশের নিজ কক্ষে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ শীর্ষক একটি আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ নামের একটি সংগঠন আলোচনা সভার আয়োজন করে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যে দলের পরিবারের সদস্য মাদকাসক্তির কারণে বিদেশে অকালে মৃত্যুবরণ করেন, যাদের নেতারা টেলিভিশনে কথা বলার সময় স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারেন না, তারা মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে অভিযোগ তুলবে, এটিই স্বাভাবিক।’ তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে এই অভিযানে বাংলাদেশের মানুষ খুশি। যে যত কথাই বলুক মাদকের বিরুদ্ধে এই অভিযান চলবে এবং এই অভিযানে কে সাদা-কালো, কে কোন দলের, কোন মতের সেটি দেখা হচ্ছে না, হবে না। দলমত-নির্বিশেষে যারাই মাদকের সঙ্গে যুক্ত, সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করছে এবং করবে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ভারতের কাছ থেকে সীমান্তে, সমুদ্রে, ছিটমহলে, গঙ্গা নদীতে পানিবণ্টনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ন্যায্য হিস্যা আদায় করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ মহাকাশে বাংলাদেশের পতাকা উড়েছে। অর্থাৎ জলে, স্থলে, অন্তরিক্ষে শেখ হাসিনা তাঁর গতিশীল নেতৃত্বের মাধ্যমে বাংলাদেশের বিজয়কেতন উড়িয়েছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেভাবে সীমান্ত সমস্যার সমাধান হয়েছে, যেভাবে সমুদ্রসীমা সমস্যার সমাধান হয়েছে, গঙ্গার পানির হিস্যা যেভাবে আদায় হয়েছে, ঠিক একইভাবে তিস্তার পানি সমস্যার সমাধানও যথাসময়ে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনা ভারতের একটি রাজ্যের রাজধানীতে গেছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে, শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করার জন্য রাজধানী থেকে কলকাতায় উড়ে এসেছেন। এখানেই বোঝা যায়, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক কত গভীর এবং শেখ হাসিনার সঙ্গে নরেন্দ্র মোদির সম্পর্ক কত গভীর।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমানের সভাপতিত্বে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, তাঁতী লীগের কার্যকরী সভাপতি সাধনা দাশ গুপ্তা, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন প্রমুখ আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0