default-image

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তি পেতে পারেন আজ বুধবার। তবে কখন তিনি মুক্তি পাবেন, সে সম্পর্কে বেলা দেড়টা পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া প্রথম আলোকে বলেন, কারা কর্তৃপক্ষের ছাড়পত্র পেলেই তাঁরা পরবর্তী কার্যক্রমে যাবেন। বেলা দেড়টা পর্যন্ত তাঁরা ছাড়পত্র হাতে পাননি। তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া তাঁর জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসা পরামর্শ অনুসরণ করছিলেন না। এদিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল আলম বেলা একটার দিকে চিঠি হাতে না পাওয়ার কথা জানান।

বিএসএমএমইউর প্রিজন সেলে আটক খালেদা জিয়ার অপেক্ষায় আছেন বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাবের কয়েকজন নেতা, মহিলা দল ও সহযোগী সংগঠনের কিছু নেতা–কর্মী। তবে পরিবারের সদস্যরা এখনও এসে পৌঁছাননি। বিএসএমএমইউর সামনে কারা সদস্যরা উপস্থিত আছেন।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে দুটি শর্তে খালেদা জিয়াকে মুক্তির কথা সংবাদ ব্রিফিং করে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি আরও বলেন, মুক্তির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ফাইল পাঠিয়েছেন। খালেদা জিয়া, জিয়া অরফঅনেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টে দুর্নীতির দুটি মামলায় সাজা ভোগ করছেন ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0