বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদের আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

‘সরকার গণতন্ত্রকে বিলীন করে ফেলছে’—বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্রের নামে যারা নির্বাচনবিমুখ, যারা জনগণের ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী নয়, যারা ক্ষমতায় থাকাকালে ভোটারবিহীন নির্বাচন করে এবং সোয়া এক কোটি ভুয়া ভোটার তৈরি করে, তারাই আবার গণতন্ত্রের কথা বলে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, সব সময় তো শুধু গণতন্ত্রের কথা বলেন। জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে কেন আপনি সংসদে গেলেন না? জনমতকে অসম্মান কে দেখাল—সরকার না আপনারা?

বিএনপির রাজনীতি অস্থিরতাপূর্ণ উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, এ অস্থিরতা ক্ষমতা ফিরে পাওয়ার, এ অস্থিরতার কারণে বিএনপি ক্রমেই হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছে। বিএনপি নিশ্চিত হয়েছে জনগণের ভোটে ক্ষমতায় আসতে পারবে না, সে জন্য তারা দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। বিএনপি উসকানি দিয়ে নানা অঘটন ঘটিয়ে সরকারের ওপর দায় চাপাতে চায়।

আগামীকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভার আলোচ্য বিষয় সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়রের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে এবং চলমান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের বিষয়েও আলোচনা হবে। তিনি বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যারা বিদ্রোহ করছে এবং বিদ্রোহীদের মদদ দিচ্ছে, তাদের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটিতে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে

বুধবার টাঙ্গাইলে মাওলানা ভাসানীর সমাধিস্থলে নবগঠিত দল বাংলাদেশ গণ অধিকার পরিষদ নেতৃবৃন্দের ওপর হামলার ঘটনাকে দুঃখজনক ও নিন্দনীয় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এ ব্যাপারে কথা হয়েছে। হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে। এ হামলা নিয়ে তদন্ত চলছে।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন