default-image

বিএনপিকে স্বাধীনতার ঘোষকের দল, মুক্তিযোদ্ধাদের দল বলে অভিহিত করেছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, একটি দল মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দল বলে দাবি করে। পড়ালেখা করে, গল্প শুনে চেতনা সৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধাদের, যারা রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধা, তাদের দলের চেতনা এক নয়।

আজ শুক্রবার বিকেলে বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশানের কার্যালয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী কমিটির যৌথসভার শুরুতে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন অভিযোগ করেন, ১৪ বছর ধরে যারা ক্ষমতায় আছে, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে তাদের ইচ্ছেমতো লেখার চেষ্টা করছে। তারা বর্তমান প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করছে, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করছে। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মূল আকাঙ্ক্ষা ছিল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা। আজ দেশে গণতন্ত্র নেই। বর্তমান ক্ষমতাসীনেরাই ১৯৭৫ সালে গণতন্ত্রকে হত্যা করে একদলীয় বাকশাল কায়েম করেছিল। এটা মুক্তিযুদ্ধের আকাঙ্ক্ষা ছিল না। স্বাধীনতার ৫০ বছরে এই ​গণতন্ত্রহীনতা, বিচারহীনতার ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে।

বিজ্ঞাপন

পরে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন জাতীয় কমিটির সঙ্গে স্টিয়ারিং কমিটি, বিষয়ভিত্তিক কমিটি, বিভাগীয় সমন্বয় কমিটিসহ বহির্বিশ্বের চারটি আঞ্চলিক কমিটির আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবদের বৈঠক হয়।

খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শাহজাহান ওমর, আবদুল আউয়াল মিন্টু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন ও নিতাই রায় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা আমান উল্লাহ আমান, মিজানুর রহমান মিনু, মাহবুব উদ্দিন খোকন উপস্থিত ছিলেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন