default-image

জনসভা থেকে ভবিষ্যৎ কর্মসূচি ঘোষণা করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আজ সোমবার রাতে জোটের মুখপাত্র বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন। কাল মঙ্গলবার বেলা দুইটা থেকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই জনসভা অনুষ্ঠিত হবে।

রাত ৯টার দিকে রাজধানীর মতিঝিলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদের চেম্বারে ওই ব্রিফ হয়। এতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ঐক্যফ্রন্টের বেশ কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিতীয় দফায় অনুষ্ঠেয় সংলাপের বিষয়বস্তু কী হবে সে প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, এ বিষয়টিও কাল চূড়ান্ত হবে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনুষ্ঠিত প্রথম দফার সংলাপ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ওই সংলাপে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল রাজনৈতিক মামলা হবে না। কিন্তু এখনো তা চলছে। তাদের নেতা-কর্মীদের গণগ্রেপ্তার করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হচ্ছে।

ঐক্যফ্রন্টে কাদের সিদ্দিকীর যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্তকে ধন্যবাদ জানান মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, তাঁকে ঐক্যফ্রন্টে অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রংপুরে আদালত প্রাঙ্গণে আইনজীবী মইনুল ইসলামের ওপর হামলা প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, পুলিশ হেফাজতে থাকা অবস্থায় তাঁর ওপর যে হামলা হয়েছে ঐক্যফ্রন্ট তার নিন্দা জানায়। ঐক্যফ্রন্ট তাঁকে মুক্তি দেওয়ার জন্য আহ্বান জানায়।

এ ছাড়া ব্রিফিংয়ে বিএনপি নেতা তরিকুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। এ সময় মওদুদ আহমদ, ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা মহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, গণস্বাস্থ্যে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন