বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জাপার বনানীর কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে দলের ঢাকা মহানগর উত্তরের থানা কমিটির নেতাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় জি এম কাদের এসব কথা বলেন।
জি এম কাদের বলেন, সময়মতো মানুষকে করোনার টিকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় করোনা পরিস্থিতি এতটা খারাপ হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কখনোই লকডাউন সফল হবে না। কারণ, দেশের বেশির ভাগ মানুষেরই ঘরে খাদ্য নেই, পকেটে পয়সা নেই। তাই খাদ্যসহায়তা না দিলে ক্ষুধার্ত মানুষ ঘরের বাইরে বের হবেই। শুরু থেকেই আমরা লকডাউনের আগে দরিদ্র মানুষকে খাদ্যসহায়তা দিতে বলেছি। সদিচ্ছার অভাবে সরকার হতদরিদ্র মানুষের জন্য খাদ্যসহায়তা দেয়নি।’

জাপার চেয়ারম্যান দেশবাসীর উদ্দেশে বলেন, ‘মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ দেখেছেন। দেশের কল্যাণে তারা কিছুই করতে পারেনি। তাই পল্লিবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টির পতাকাতলে শামিল হোন।’

জাপার মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বর্তমান সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে উদ্ভট কথা বলা হচ্ছে, যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই। দেশের অধিকাংশ গ্রামে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে, কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আবদুস সবুর, শফিকুল ইসলাম, উপদেষ্টা মনিরুল ইসলাম, আমানত হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম পাঠান, যুগ্ম মহাসচিব মো. সামসুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন সরকার প্রমুখ। সভার আগে বনানীর কার্যালয়ে জাপার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল হয়।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন