বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সরকার করেছে। এটা একটা জুলুমের আইন করা হয়েছে। অর্থাৎ এই আইনে বিরোধী মতের লোক যদি মামলা করে দেখবেন যে সকালে মামলা নেবে বিকেলে বলবে যে খারিজ করে দিয়েছেন কোর্ট। আর আওয়ামী লীগের কোনো নেতা বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে এই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করলে দেখবেন সেই মামলা প্রথম থেকে সুন্দর প্রক্রিয়ায় চলবে। বিএনপির সেই লোকটিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করবে, আদালতে হাজির করবে, কারাগারে পাঠাবে, তারপরে জামিনের জন্য তাঁর আইনজীবী বারবার আবেদন করবে—জামিন দেবে না। অনেক দিন, ছয় মাস, এক ছর, দেড় বছর পর হয়তো সে মুক্তি পাবে।’

দেশের বর্তমান অবস্থাকে ‘ভয়ংকর শ্বাসরুদ্ধকর’ উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘আমরা এমন একটি সমাজে বাস করি, যেখানে কথা বলা যায় না, বাক্‌স্বাধীনতা নেই। ডানে-বাঁয়ে সব সময় তাকাতে হয় কেউ আমাকে অনুসরণ করছে কি না বা আমি কারও দ্বারা অনুসরিত হচ্ছি কি না।'

বর্তমান সরকারের আমলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সত্য কথা বলার জন্য অ্যাক্টিভিস্টদের ওপর নির্যাতন-দমন নীতির কঠোর সমালোচনা করেন তিনি। একই সঙ্গে প্রয়াত অ্যাক্টিভিস্টদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন রিজভী।

সরকারের বিরুদ্ধে দেশ-বিদেশে ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে সম্প্রতি জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণের প্রতিক্রিয়ায় রিজভী বলেন, ‘যারা গণতন্ত্র চায় ও মুক্তকণ্ঠে কথা বলতে চায়, তারা প্রত্যেকেই এই মুহূর্তে আপনার পদত্যাগ চান। আপনার বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র হবে কেন? এই রক্তপিপাসু সরকারের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে যদি ষড়যন্ত্র হয়েও থাকে, এই ষড়যন্ত্র ন্যায়সংগত বলে আমি মনে করি। কারণ, সবকিছু মিলে আপনাদেরকে ক্ষমতা ছাড়তে হবে।’

রিজভী বলেন, ‘২০২২ সাল হবে বাংলাদেশের জন্য অবকাঠামো উন্নয়নের এক মাইলফলক বছর’ গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া এ বক্তব্যের উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আপনি (প্রধানমন্ত্রী) কি জানেন, আজকে যে সন্তানটি জন্মগ্রহণ করছে, তার পেছনে ৯৮ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে সে জন্মগ্রহণ করছে! আপনি উন্নয়নের কথা বলেন। ২০২২ সাল বলেন, উন্নয়নের মাইলফলক হবে। এটা তো ঋণের মাইলফলক।’

কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির সৈয়দ এমরান সালেহ, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, ওয়াহিদুজ্জামান, আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন