বিজ্ঞাপন

ভোটের কক্ষেই এসব মনিটর থাকে। দুপুর ১২টায় ঘুরে দেখা যায়, ১ নম্বর মনিটরে ভাসছে মাত্র পাঁচ জনের ভোট দেওয়ার তথ্য। এখানে ভোটার ছিলেন ৪২৬ জন। ২ নম্বর মনিটরে ৪২৬ জন ভোটারের মধ্যে ৪ জন ভোট দিয়েছেন। ৩ নম্বর মনিটরে ৪২৬ জন ভোটারের মধ্যে ৩ জন ভোট দিয়েছেন, ৪ নম্বর মনিটরের সাতজনের ভোট দেওয়ার তথ্য ভাসছে। এখানেও ভোটার ৪২৬ জন। ৫ নম্বর মনিটরে ৪২৬ জনেরর মধ্যে ৬ জন, ৬ নম্বর মনিটরেও ৪২৬ জনের মধ্যে ৬ জন এবং ৭ নম্বর মনিটরে ৪২০ জন ভোটারের মধ্যে ৪ জনকে ভোট দিতে দেখা গেছে।

কেন্দ্রে ভোটারদের কম উপস্থিতি এবং দলীয় প্রার্থীদের এজেন্ট না থাকা বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে রিটার্নিং কর্মকর্তা জি এম সাহাতাব উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, এখনো সময় আছে ভোটাররা হয়তো কেন্দ্রে আসবেন। তিনি কেন্দ্রে এসে ভোটারদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

বিএনপি ও আওয়ামী লীগসহ এই আসনে ছয়জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে বিএনপির প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোহাম্মদ হাবিব হাসান, জাতীয় পার্টির নাসির উদ্দিন সরকার, গণফ্রন্টের গাজী মো. শহীদুল্লাহ, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ওমর ফারুক, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির মহিবুউল্লাহ বাহার।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন