বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক এক করে দেশে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, কর্ণফুলী টানেল, একাধিক আন্ডারপাস, চার লেন ও আট লেন সড়ক এবং ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ায় বিএনপির গায়ে জ্বালা ধরেছে। বিএনপি নেতাদের এসব উন্নয়ন সহ্য হয় না বলে তাঁরা প্রলাপ বকছেন।’

বিএনপির হাতে দেশের গণতন্ত্র নিরাপদ নয় উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাঁরা দেশের জন্য রাজনীতি করেন না, তাঁরা রাজনীতি করেন লুটপাটের জন্য। জনগণ বিএনপি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে বলেই তাঁরা নির্বাচনকে ভয় পান, তাই নির্বাচন নিয়ে বিএনপি অপপ্রচার চালাচ্ছে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার লক্ষ্য এ দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন আর বিএনপির লক্ষ্য নিজেদের পকেটের উন্নয়ন।

জনগণের পাশে থেকে তাদের জন্য কাজ করতে দলের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নিজের অবস্থান ভারী করার জন্য নিজের লোকদের কমিটিতে রাখা যাবে না।

তিনি দলের দুঃসময়ের ত্যাগী কর্মীদের কমিটিতে সুযোগ করে দিতে নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, যাঁদের মানুষ পছন্দ করে, তাঁদেরই নেতা বানাতে হবে, নিজের পছন্দের কাউকে নয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যেসব জনপ্রতিনিধি অপকর্ম, মাদক, সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত, তাঁদের ভবিষ্যতে কোনো পর্যায়ের নির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন