বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মুজাহিদুল ইসলাম আরও বলেন, করোনাকালে লাখ লাখ মানুষ কাজ হারিয়েছে। ৭০ শতাংশ মানুষের আয় কমে গেছে। নতুন করে আড়াই কোটি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে নেমে যাওয়ায় এখন দেশে পাঁচ কোটির বেশি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করছে। এর মধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, সরকার করোনা মোকাবিলায় ১ লাখ ২৮ হাজার কোটি টাকা আর্থিক প্রণোদনা দিয়েছে। আড়াই হাজার টাকা করে পঞ্চাশ লাখ মানুষকে দেওয়ার কথা থাকলেও তা সবাইকে দেওয়া হয়নি। প্রণোদনার প্রায় পুরোটাই শিল্পমালিকসহ ধনী উদ্যোক্তাদের প্রদান করা হয়েছে। কৃষক, শ্রমিকদের নামে যে বরাদ্দ, তা গেছে মূলত চাতাল মালিক, ব্যবসায়ী, অকৃষক জমির মালিক ও পোশাক কারখানার মালিকদের হাতে।

রাজধানী ছাড়াও বরিশাল, গাইবান্ধা, ফরিদপুর, মৌলভীবাজার, নওগাঁ, কুমিল্লা, রাজশাহী, গাজীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, খুলনা, হবিগঞ্জ, রাজবাড়ী, কুষ্টিয়া, পটুয়াখালী, কুড়িগ্রামসহ দেশের প্রায় সকল জেলা শহর এবং অনেক উপজেলা শহরে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন