default-image

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। আইন শৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে।

আজ বুধবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে নিজ চেম্বারে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের এক বৈঠক শেষে কামাল হোসেন এসব কথা বলেন।

কামাল হোসেন বলেন, 'দেশে একের পর এক অনেকগুলো ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। আইন শৃঙ্খলার অবনতি খুবই দৃশ্যমান। আমরা মনে করি আন্দোলনকে জোরদার করতে হবে নারীদের অধিকার এবং আইনের শাসন রক্ষা করার জন্য। '

আজকের বৈঠক থেকে ঐক্যফ্রন্ট বিভিন্ন কর্মসূচির কথা জানায়। কর্মসূচির ঘোষণা দেন জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।

ফেনীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাতকে পুড়িয়ে মারার প্রতিবাদসহ নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে আগামী ৩০ এপ্রিল বিকেল ৪ টায় রাজধানীর শাহবাগে জমায়েত করবে ঐক্যফ্রন্ট।

অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে নোয়াখালী ও রাজশাহীসহ বিভিন্ন জেলায় গণশুনানির জন্য নাগরিক সভা হবে। এ ছাড়া রোজার মাসে সুধী সমাবেশ হবে।

আ স ম রব বলেন, প্রতিদিন শিশু ধর্ষণের খবর আসছে। নারী ও শিশুরা ঘরে-বাইরে নিরাপদ নয়। পুলিশ নিজেদের দায়িত্ব ঠিকভাবে পালন করলে এ ধরনের ঘটনা ঘটত না বলে মন্তব্য করেন রব।

ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানানো হয়। এ ছাড়া তাদের নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবি মামলা না দেওয়া ও হয়রানি না করার দাবি ও আটক নেতাদের মুক্তির দাবিও জানানো হয়।

শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার ঘটনার নিন্দা জানায় ঐক্যফ্রন্ট। হামলায় নিহত আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলের সদস্য শেখ সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরী নিহত হয়েছে। ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে জায়ানের আত্মার শান্তি কামনা করা হয় এবং তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করা হয়।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি থেকে আবদুল মঈন খান, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কাদের সিদ্দিকী, গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মন্টু, সুব্রত চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন