আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে ইভিএমে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আগামী নির্বাচনে বিএনপিকে আনা, সভা-সমাবেশের সুযোগ দেওয়া, সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে আশ্বাস দেওয়া হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটি মনে করে, খালেদা জিয়াসহ সব রাজনৈতিক নেতা-কর্মীর মুক্তি, সব মামলা প্রত্যাহার, অবৈধ সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল, নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনসহ সব দলের অংশগ্রহণ ব্যতীত বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হবে না। এ ছাড়া নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য ইভিএম গ্রহণযোগ্য হবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভায় কুমিল্লার দাউদকান্দিতে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ওপর হামলা, তাঁর বাসভবনে আক্রমণ, পরবর্তী সময়ে নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার নিন্দা-প্রতিবাদ জানানো হয়।

একই সঙ্গে কুমিল্লায় চান্দিনায় এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদের গাড়িতে হামলার পর তাঁকে গ্রেপ্তারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা-মামলার নিন্দা জানানো হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটি বলেছে, একদিকে সরকারপ্রধান গণতন্ত্রের কথা বলছেন, অন্যদিকে হামলা-মামলা দিয়ে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে। শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে আবারও ক্ষমতায় যেতে চায় আওয়ামী লীগ। এর বিরুদ্ধে জনগণকে প্রতিরোধ গড়ে তুলে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আন্দোলন বেগবান করার আহ্বান জানায় বিএনপির স্থায়ী কমিটি।

সয়াবিনের মূল্য

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভায় ভোজ্যতেলের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি ও বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির জন্য সরকারকে দায়ী করা হয়। সভা মনে করে, সরকারের প্রত্যক্ষ মদদপুষ্ট অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের সদস্যদের অনৈতিকভাবে লাভবান করার জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ না করতে পারার দায় নিয়ে অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছে বিএনপির স্থায়ী কমিটি।

হাজি সেলিমের বিদেশ ভ্রমণে বিস্ময়

সভায় দুর্নীতির মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্মদ সেলিমের বিদেশ ভ্রমণের ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করা হয়। বিএনপির স্থায়ী কমিটি বলেছে, এ ঘটনা থেকে প্রমাণিত হয়, এই রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানগুলোকেই দলীয়করণ করা হচ্ছে। অন্যদিকে খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ হওয়া সত্ত্বেও তাঁকে বিদেশে চিকিৎসার কোনো সুযোগ দেওয়া হয়নি। বিএনপি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন