default-image

দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের জন্য একটি গোয়েন্দা সংস্থা ফরম পূরণের উদ্যোগ নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। নেতা-কর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ মৌলিক অধিকার পরিপন্থী উল্লেখ করে এ ধরনের উদ্যোগ বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে দলটি।

গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এ দাবি জানান। গত শনিবার অনুষ্ঠিত দলের স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত তুলে ধরতে তিনি এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, একটি গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে বিশেষ করে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্যাদি সংগ্রহের জন্য যে ফরম পূরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, তাকে রাজনৈতিক অসৎ উদ্দেশ্য পূরণের প্রয়াস বলে চিহ্নিত করা হয়েছে স্থায়ী কমিটির সভায়। সভায় ব্যক্তি ও রাজনৈতিক মৌলিক অধিকার পরিপন্থী এমন তৎপরতা বন্ধ করার দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

নজরুল ইসলাম খান বলেন, স্থায়ী কমিটি মনে করে, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা টেলিভিশন দেশ ও দেশের স্পর্শকাতর প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে প্রচারিত রিপোর্ট সম্পর্কে জনমনে অনিবার্য উৎকণ্ঠার সৃষ্টি করেছে। এই উৎকণ্ঠা অবসানের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট গ্রহণযোগ্য ও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যা প্রকাশে বিএনপির পক্ষ থেকে যে দাবি জানানো হয়েছিল, তা না জানানোর নিন্দা জানিয়েছে স্থায়ী কমিটি। এ বিষয়ে শিগগিরই দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।

১১ জানুয়ারি বিক্ষোভ

নড়াইল আদালতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, সাতক্ষীরার আদালতে প্রকাশনাবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ১০ জন এবং পাবনার ৪৭ জন নেতা-কর্মীকে ‘ষড়যন্ত্রমূলক মামলায়’ সাজা এবং দলের বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক সালাহউদ্দিন আহমেদকে কারাগারে পাঠানোর নিন্দা জানানো হয়। এর প্রতিবাদে ১১ ফেব্রুয়ারি সব মহানগর ও জেলা সদরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

স্থায়ী কমিটি দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে সরকারের ব্যর্থতার সমালোচনা করে।

এ ছাড়া মিয়ানমারে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে সামরিক বাহিনীর রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের ঘটনার নিন্দা জানায় স্থায়ী কমিটি।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন