বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আলোচনার ডাকে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সাড়া দেননি। এটা ছিল তাঁর ভুল রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত।
তবে বদরুদ্দোজা চৌধুরী মনে করেন, খালেদা জিয়া একবার সাড়া দেননি বলে আবার তাঁকে আলোচনায় ডাকা যাবে না, এমনটা ঠিক নয়। তিনি মনে করেন, দেশ বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীকেই এগিয়ে আসতে হবে।
‘চলমান রাজনৈতিক সংকট উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় গতকাল বৃহস্পতিবার বদরুদ্দোজা চৌধুরী এসব মন্তব্য করেন। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে ২০-দলীয় জোট সমর্থক বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।
সেমিনারে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘আমি পেট্রলবোমার বিরুদ্ধে। কিন্তু এ বোমা কারা মারছে তা খুঁজে বের করতে হবে।’ ক্রসফায়ারের নামে কাদের মারছে, কারা মারছে, তাও খুঁজে বের করার আহ্বান জানিয়ে তিনি প্রধান বিচারপতিকে অনুরোধ করে বলেন, ‘কারা পেট্রলবোমা মারছে তা খোঁজার জন্য আপনি একটি কমিটি করে দিন।’
খুনিদের সঙ্গে আলোচনা নয়—প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের বক্তব্যের বিষয়ে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘বিডিআর বিদ্রোহের সময় ৫৭ জন সেনা কর্মকর্তাকে যারা খুন করল, তাদের সঙ্গে আলোচনা করেননি?’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী, আপনি হচ্ছেন দেশ পরিচালনার একমাত্র জ্যেষ্ঠ নেতা। আপনাকেই বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে, বসতে হবে। অবিলম্বে আলোচনায় বসুন, দেশকে রক্ষা করার এটাই একমাত্র উপায়।’
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, এখন সারা দেশে সাত লাখ আসামি। কিছুদিন পরে যদি ১৪ লাখ আসামি হয়, তাহলে দেশে শতকরা একজন করে মামলার আসামি হবেন। তখন বিশ্বরেকর্ড হয়ে যাবে।
সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য খন্দকার মুস্তাহিদুর রহমান, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সহসভাপতি এম খালেদ আহমেদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব এম এ আজিজ প্রমুখ। সভা থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়, চলমান রাজনৈতিক সংকট দূর করার দাবিতে কাল শনিবার বেলা ১১টায় কুড়িল বিশ্বরোডে বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে অবস্থান কর্মসূচি পালিত হবে।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন