প্রশ্ন পরিবর্তন ও মন্ত্রীর ভুল উত্তর দেওয়ার অভিযোগ বিএনপির হারুনের

বিজ্ঞাপন
default-image

জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বের জন্য জমা দেওয়া প্রশ্ন পরিবর্তনের অভিযোগ করেছেন বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ। তিনি আরও অভিযোগ করেন, মেডিকেলে প্রশ্ন ফাঁস সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সঠিক উত্তর দেননি। তাই এই বিষয়ে স্পিকারের কাছে প্রতিকার চান তিনি। জবাবে স্পিকার বলেন, প্রশ্ন পরিবর্তনের বিষয়টি দেখা হবে। তবে মন্ত্রীর দেওয়া উত্তরের বিষয়টি নিয়ে কিছু করার নেই।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে আইন প্রণয়ন সংক্রান্ত কার্যাবলির একপর্যায়ে দাঁড়িয়ে বিএনপির সাংসদ এই অভিযোগ করেন। এ সময় স্পিকার শিরিন শারমীন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাংসদ হারুন কার্যপ্রণালী বিধির ৩০৮ বিধির কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘আমরা কষ্ট করে সংসদে প্রশ্ন জমা দিই। তার আলোকে আপনি ক্ষমতাবলে যেগুলো গ্রহণ করেন, মাননীয় মন্ত্রীরা তার উত্তর দিয়ে থাকেন। আমরা যেভাবে প্রশ্নটা জমা দিই, হুবহু সেইভাবে আসা উচিত। আপনি গ্রহণ না করতে পারেন। কিন্তু আপনার মতো করে তো পরিবর্তন করতে পারবেন না। এই বিষয়টি দৃষ্টিতে আনতে চাই।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হারুন আরও বলেন, মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস বিষয়ে গত সোমবার তার এক প্রশ্নে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়ে থাকে । ভর্তি প্রক্রিয়ায় অসৎ উপায়ে ভর্তির কোনো অভিযোগ কোনো পক্ষ থেকে পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পাওয়া গেলে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মন্ত্রীর ওই জবাব সঠিক নয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের উদ্ধৃতি দিয়ে বিএনপির সাংসদ বলেন, ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রতি বছরই ধারাবাহিকভাবে প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে । এর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সিআইডি তদন্ত করে সত্যতা পেয়েছে। অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অনেকে প্রশ্নফাঁস করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। তাই মন্ত্রীর উত্তর বাতিল করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এই বিষয়ে স্পিকার শিরিন শারমীন চৌধুরী বলেন, ‘প্রশ্ন পরিবর্তনের বিষয়টি আমি দেখব। কিন্তু প্রশ্নের উত্তর তো মন্ত্রী দিয়েছেন। এটা নিয়ে কিছু করার নেই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন