default-image

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে আঘাত হানা ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বরগুনার পাথরঘাটা পরিদর্শনে আসছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। আজ সোমবার দুপুরের দিকে পাথরঘাটা থেকে নদীপথে বলেশ্বর নদের তীরের চরদুয়ানী ইউনিয়নের দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রামের বাঁধ এলাকায় তাঁরা যাবেন। ঢাকা থেকে আজ ভোরে বরিশাল পৌঁছে সড়কপথে বরগুনার পাথরঘাটা আসবেন তাঁরা।

পরিদর্শন দলে রয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ আমির হোসেন আমু, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মো. আফজাল হোসেন। ওই দলে উপস্থিত থাকবেন বরগুনা-১ আসনের সাংসদ ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, বরগুনা-২ আসনের সাংসদ শওকত হাচানুর রহমান, সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ নাদিরা সুলতানা, বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর কবিরসহ বরগুনা জেলা ও পাথরঘাটা উপজেলা নেতৃবৃন্দ।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের পাথরঘাটা পরিদর্শনে আসার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন পাথরঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাবির হোসেন। তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় ফণীতে পাথরঘাটা উপজেলার সাড়ে আট শরও বেশি ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিধ্বস্ত হয়েছে চরদুয়ানী ইউনিয়নের তাফালবাড়িয়া ও দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রামে। দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রামে ঘরচাপায় দাদি-নাতির মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বরগুনা-২ আসনের সাংসদ শওকত হাচানুর রহমান ওই পরিবারকে ২০ হাজার টাকা সহায়তা দিয়েছেন। পাথরঘাটা উপজেলা প্রশাসন থেকে পরিবারটিকে ৪০ হাজার টাকা দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

জাবির হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমুর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদল ক্ষতিগ্রস্ত দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রাম পরিদর্শন শেষে নিহত দাদি নূরজাহান বেগম ও নাতি জাহিদুলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবে। পরে দক্ষিণ চরদুয়ানী গ্রামের বাঁধঘাট এলাকায় কেন্দ্রীয় নেতারা এক পথসভায় অংশ নেবেন।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও চরদুয়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান জুয়েল বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় ফণীতে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের আগমনের খবরে আশার আলো দেখছেন স্থানীয় চরদুয়ানীসহ উপজেলাবাসী। আমরা কেন্দ্রীয় নেতাদের মাধ্যমে আমাদের দাবি তুলে ধরতে চাই। চরদুয়ানী ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে অন্তত একটি করে নয়টি চারতলা ভবনের ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র এবং সব কাচা রাস্তা পাকা করার দাবি জানাই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0