খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৪১ বস্তা চাল আত্মসাতের মামলায় পলাতক বগুড়ার কাহালু উপজেলার বীরকেদার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি টিএম ছানাউল্লাহকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।সেই সঙ্গে তাঁকে সংগঠন থেকে বহিস্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের কাছে সুপারিশ করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের এক বিজ্ঞপ্তিতে সরকারি চাল আত্মসাতের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে টিএম ছানাউল্লাহকে দলীয় পদ থেকে অব‍্যাহতির বিষয়টি জানানো হয়।

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসানের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে।

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সরকারি চাল আত্মসাতের মাধ্যমে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করায় এই ব‍্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সাংগঠনিক সূত্রে জানা যায়, কাহালু উপজেলার বীরকেদার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলার টি এম ছানাউল্লাহ খাদ্যবান্ধব কর্মসুচির ১০ টাকা কেজি দরের ৫০ কেজি ওজনের ৪১ বস্তা চাল দরিদ্রদের মাঝে বিক্রি না করে গুদামে মজুত করেন। ঈদের আগের দিন কালোবাজারে বিক্রির জন্য ওই ৪১ বস্তা চাল পাচারের সময় জনতা আটক করে পুলিশে খবর দেয়। কাহালু থানা পুলিশ চালগুলো জব্দ করে ছানাউল্লাহর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করেছে। এরপর থেকে ছানাউল্লাহ পলাতক রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন