default-image

ঢাকায় হঠাৎ বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা বিএনপির ষড়যন্ত্রের অংশ বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। আজ শুক্রবার দুপুরে সরকারি নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এমন মন্তব্য করেছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় ১০টি বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বাসে অগ্নিসংযোগ ও বিএনপির বিভিন্ন মহলের উসকানিমূলক বক্তব্য দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্রেরই অংশ। তিনি আরও বলেন, দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। দক্ষতার সঙ্গে করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দেশকে অস্থিতিশীল করতে ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে গতকাল বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন মহল থেকে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে এবং বাস পোড়ানোতে যে বিএনপি জড়িত, তা সহজেই অনুমেয়।

বিজ্ঞাপন

নির্বাচনে কারচুপি আড়াল করতেই বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এই মন্তব্যের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, অতীতে কারা এভাবে বাস পুড়িয়েছে, কীভাবে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করে শত শত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, দেশবাসী তা ভালোভাবেই জানে। তিনি আরও বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব শাক দিয়ে মাছ ঢাকার অপচেষ্টা করছেন, যাতে কোনো লাভ হবে না।

এ ধরনের ঘটনায় সতর্ক থাকতে ও সন্দেহজনক কিছু দেখলে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরে আনার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান হাছান মাহমুদ।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় ৯টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে ৪৪৬ জনকে। আটক করা হয়েছে ২০ জনকে।

আসামিদের বেশির ভাগ বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মী।

মন্তব্য পড়ুন 0